জুলাইয়ের শেষে টিকা পাবে শিশুরা : স্বাস্থ্যের ডিজি

প্রকাশিতঃ 12:19 pm | July 19, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

মহামারি করোনা প্রতিরোধে সারাদেশে চলছে করোনা টিকা প্রদান কর্মসূচি। এবার এ তালিকায় যুক্ত হচ্ছে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুরাও। চলতি জুলাইয়ের শেষে ৫ থেকে ১১ বছরের শিশুদের করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. খুরশিদ আলম।

তিনি বলেছেন, ৫-১১ বছরের শিশুদের টিকা আলাদা। এটা পয়েন্ট টু এমএলের ডোজ। এই টিকার ভায়াল আলাদা ও সিরিঞ্জ আলাদা। চলতি মাসের শেষে আমাদের বেশকিছু টিকা ও সিরিঞ্জ এসে পৌঁছাবে। আমরা আশা করছি, চলতি মাসের শেষে ৫ থেকে ১১ বছরের শিশুদের করোনার টিকা প্রয়োগ শুরু করা যাবে।

‘আমরা ইতোমধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছি। এটার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে নিয়ে একটি মিটিং হবে। এরপর একযোগে সারা দেশে কার্যক্রম শুরু করব। প্রাথমিকভাবে আমরা ঢাকা থেকে এই কার্যক্রম শুরু করব, পর্যায়ক্রমে সারাদেশে চালু করা হবে।’

মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) বুস্টার দিবস উপলক্ষে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) টিকা কেন্দ্র পরিদর্শনকালে ডিজি এসব কথা বলেন।

এবিএম খুরশীদ আলম বলেন, করোনা এখন মারাত্মক সংক্রমণ ঘটাচ্ছে না। তাই বুস্টার ডোজ নিতে মানুষের আগ্রহ কম দেখা যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, মানুষের এখন টিকা নেওয়ার আগ্রহ অনেক কমে গেছে। আগে যেরকম ভয়াবহতা ছিল প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পরে সেই ভয়াবহতা না থাকায় আমরা তাদের মধ্যে আগ্রহ কম দেখছি। আমরা চেষ্টা করছি প্রচার-প্রচারণার মাধ্যমে তাদের আগ্রহ বাড়ানোর। মিডিয়া এক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যেহেতু করোনার প্রকোপ আবার বাড়ছে তাই সবাইকে বুস্টার ডোজ নেওয়ার জন্য আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হক, ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক ডা. মো আশরাফুল আলমসহ অধিদপ্তরের অন্য কর্মকর্তারা।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email