এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং বাড়াবে অপারেশনাল সক্ষমতা, সুদৃঢ় সৌহার্দ্যের বার্তা সিজিএস’র 

প্রকাশিতঃ 9:16 pm | March 12, 2023

বিশেষ সংবাদদাতা, কালের আলো:

৭ দিনব্যাপী এক্সারসাইজ টাইগার লাইটনিং। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও যুক্তরাষ্ট্রের প্যাসিফিক আর্মি কমান্ডের মধ্যে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে পারস্পরিক সমঝোতা ও অপারেশনাল সক্ষমতা বাড়াতে চতুর্থবারের মতো আয়োজিত গুরুত্বপূর্ণ এই অনুশীলনের পর্দা নেমেছে রোববার (১২ মার্চ)। অতীতের ধারাবাহিকতায় বন্ধুপ্রতীম এই দুই দেশের সশস্ত্র বাহিনীর বিদ্যমান সৌহার্দ্যকে আরও সুদৃঢ় করার উজ্জীবনী বার্তা দিয়েছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) লেফটেন্যান্ট জেনারেল আতাউল হাকিম সারওয়ার হাসান। 

বাস্তবধর্মী এই প্রশিক্ষণে কার্যত জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে যেকোন প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেলায় কার্যকর পরিকল্পনা প্রণয়ন ও সেটি বাস্তবায়নের কৌশল নির্ধারণের মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীদের পারদর্শী করে তোলা হয়। এদিন রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসস্থ বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিং (বিপসট) এ সশরীরে উপস্থিত থেকে এই অনুশীলনের সফল সমাপ্তি ঘোষণা করেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল আতাউল হাকিম সারওয়ার হাসান। 

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এই চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) বলেন, ‘বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় কার্যকরী অবদান রাখার পাশাপাশি বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিতকরণে সহযোগী বন্ধুপ্রতীম দেশসমূহের সাথে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এই উদ্যোগে যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সবসময়ই ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে কাজ করে আসছে।’ 

আশাবাদী উচ্চারণে তিনি বলেন, ‘অনুশীলন টাইগার লাইটনিং’ দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে বিদ্যমান সুসম্পর্ক এবং ভবিষ্যৎ সহযোগিতার ক্ষেত্রকে আরও প্রসারিত করতে সহায়ক হবে।’ সিজিএস এই অনুশীলন সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য বিপসট এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্যাসিফিক আর্মি কমান্ড ও অরেগন ন্যাশনাল গার্ডসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান। 

সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের ডেপুটি চিফ অফ মিশন মিস হেলেন লাফেভ এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্যাসিফিক আর্মি কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডিং জেনারেল মেজর জেনারেল ক্রিস্টোফার রবার্ট স্মিথ। সমাপনী অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিপসট কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল আ স ম রিদওয়ানুর রহমান। এ সময় সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তা মার্কিন প্যাসিফিক আর্মি কমান্ড’র মোট ৭২ জন সেনাসদস্য উপস্থিত ছিলেন। 

আন্ত:বাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) জানায়, গত রোববার (০৫ মার্চ) থেকে শুরু হয় চলতি বছরের অনুশীলন টাইগার লাইটনিং। সেনাসদর সামরিক প্রশিক্ষণ পরিদপ্তরের সার্বিক তত্ত্বাবধানে বিপসট এই অনুশীলনের আয়োজন করে। অনুশীলনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সঙ্গে মার্কিন প্যাসিফিক আর্মি কমান্ড’র মোট ৭২ জন সেনা সদস্য অংশগ্রহণ করেন। ২০১৭ ও ২০২১ সালে টাইগার লাইটনিং ১ ও ২ যুক্তরাষ্ট্রে এবং গত বছর টাইগার লাইটনিং-৩ বাংলাদেশের বিপসট’এ আয়োজন করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের অনুশীলনটি চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশে সফলভাবেই অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

কালের আলো/এমএএএমকে 

Print Friendly, PDF & Email