বঙ্গবন্ধু ভবিষ্যৎ প্রজন্মের অনুপ্রেরণার উৎস হিসেবে কাজ করে : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিতঃ 5:18 pm | August 15, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যা করে দেশকে পিছিয়ে দেওয়ার চক্রান্ত করা করা হয়েছিল। কিন্তু শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার আবারও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশ পরিচালনা করে যাচ্ছে। দেশকে সঠিক ধারায় চালিত করতে দরকার দক্ষ মানবিক প্রযুক্তিবান্ধব সৃজনশীল মানবসম্পদ। আর এসব যোগ্যতা অর্জনের জন্য বঙ্গবন্ধু ভবিষ্যৎ প্রজন্মের অনুপ্রেরণার উৎস হিসেবে কাজ করে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) ঢাকা মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ অতীতের যেকোনও সময়ের চেয়ে উন্নত অবস্থায় রয়েছে। দেশকে আরও অগ্রসর পর্যায়ে নিয়ে যেতে কারিগরি শিক্ষায় জোর দেওয়া হচ্ছে। একইসঙ্গে কর্মক্ষেত্রে দক্ষ নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে বিভাগীয় পর্যায়ে চারটি নতুন মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট স্থাপনসহ অনেক কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তৈরি করা হচ্ছে। বর্তমান সরকার ধারাবাহিকভাবে ক্ষমতায় থাকার কারণে শিক্ষাসহ সবক্ষেত্রে এসব উন্নতি সম্ভব হয়েছে।

অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদেরকে বঙ্গবন্ধুর জীবনী ও তাঁর লিখিত বই পডাঁর পরামর্শ দেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. কামাল হোসেন ও কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. মো.ওমর ফারুক।

এদিকে এদিন দুপুরে চাঁদপুর সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ডা. দীপু মনি বলেছেন, আগামী বছর থেকে নতুন শিক্ষাক্রমে পাঁচদিনের সপ্তাহ করা হবে। তবে সপ্তাহে পাঁচদিন ক্লাশ হলেও শিক্ষার্থীদের পাঠদানে যেন কোনো সমস্যা না হয় সেটি মাথায় রেখেই ক্লাসগুলো পুনর্বিন্যাস করা হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, আমরা ভাবছি, জ্বালানি সংকট সারাবিশ্বে চলছে সেজন্য বিদ্যুৎ সাশ্রয় করার বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সেখানে যদি আমরা এখন থেকেই আমাদের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্লাসগুলো পাঁচদিন করি তাহলে সাশ্রয়ের একটা সুযোগ হবে।

মন্ত্রী বলেন, সপ্তাহে পাঁচদিন ক্লাশ হলে শহরে একদিন শিক্ষার্থীদের স্কুলে আনা-নেয়ার জন্য যে পরিমান যানবাহন চলে সেটার সাশ্রয় হবে। তবে এখনো এই বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা এমনভাবে পাঁচদিনের মধ্যে ক্লাসগুলো পুনর্বিন্যাস করতে চাই, যাতে শিক্ষার্থীদের কোনো ধরণের কোন সমস্যা না হয়। করোনাকালীন সময় শিক্ষার্থীদের যে শিখন ঘাটতি হয়েছে, সেটি পূরনের জন্যও পরিকল্পনা চূড়ান্ত করা হয়েছে।

এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদিপ্ত রায়, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বশির আহমেদ, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান (জুয়েল) উপস্থিত ছিলেন।

পরে মন্ত্রী জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কীর্তির উপর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মন্ত্রী।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email