এবার উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে উত্তাল শাবিপ্রবি

প্রকাশিতঃ 12:07 pm | January 17, 2022

কালের আলো সংবাদদাতা:

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) হল প্রভোস্টের পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনার প্রতিবাদে এবার উপাচার্যের পদত্যাগ চেয়ে আন্দোলনে নেমেছেন শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল থেকে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। এদিন সকাল থেকেই ‘যেই ভিসি গ্রেনেড ছোড়ে, সেই ভিসির পদত্যাগ চাই’, ‘যেই ভিসি ছাত্র মারে, সেই ভিসি চাই না’, ‘যেই ভিসি গুলি ছোড়ে, সেই ভিসির পদত্যাগ চাই’, ‘শিক্ষার্থীর ওপর হামলা কেন প্রশাসন জবাব চাই’, ‘সাস্টিয়ান সাস্টিয়ান এক হও এক হও’ স্লোগানে ক্যাম্পাস উত্তাল করে তোলেন শিক্ষার্থীরা।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুপুর ১২টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশনা দেওয়া হলেও যেকোনো পরিস্থিতিতে হল ছাড়বেন না বলে জানিয়েছেন আবাসিক শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলেন, যেকোনো পরিস্থিতিতে তারা ক্যাম্পাস ছাড়বেন না। এমনকি তাদের ক্যাম্পাস ছাড়তে বলায় প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে দেন তারা। যতক্ষণ না ‘স্বৈরাচার’ উপাচার্য পদত্যাগ করছেন, ততক্ষণ আন্দোলনের মাঠে থাকবেন তারা।

উপাচার্য ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. আলমগীর কবীর, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ দাবি করেন শিক্ষার্থীরা।

ক্যাম্পাসে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন হলের ফটকে ও প্রভোস্টদের কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন। একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের কার্যালয়েও তালা দিয়েছেন তারা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

এদিকে, গতকাল রোববারের জরুরি সিন্ডিকেট সভায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আজ সোমবার দুপুর ১২টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। বেগম সিরাজুন্নেছা চৌধুরী হলের প্রভোস্ট জাফরিন আহমেদ লিজা পদত্যাগ করেছেন, নতুন হল প্রভোস্ট হয়েছেন অধ্যাপক নাজিয়া চৌধুরী।

গতকাল রোববার শিক্ষার্থীরা উপাচার্যকে ধাওয়া দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখলে পুলিশ উদ্ধারে যায়। পরে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে অন্তত ৩০ জন আহত হন। এ সময় টিয়ারশেল, সাউন্ড গ্রেনেড, রাবার বুলেট ছোঁড়ে এবং লাঠিপেটা করে পুলিশ। শিক্ষার্থীদের পাল্টা ইটপাটকেল নিক্ষেপে পুলিশ‌ সদস্যেরাও আহত হয়েছেন।

কালের আলো/এসবি/এমএইচএ

Print Friendly, PDF & Email