ময়মনসিংহে গরম বাতাসের তাণ্ডবে হাজারো কৃষকের কান্না

প্রকাশিতঃ 11:31 pm | April 06, 2021

কালের আলো সংবাদদাতা:

ময়মনসিংহে হঠাৎ গরম বাতাসে প্রায় দুই হাজার ৬৩০ হেক্টর ধানক্ষেত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। রোববার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যার পর সাতটার দিকে প্রচণ্ড ঝড় শুরু হয়ে শেষ হয় রাত ১১টার দিকে। ঝড় শুরুর কিছুক্ষণ পরে হঠাৎ শুরু হয় গরম বাতাস। আর এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ধানক্ষেত।

কৃষি অফিস সুত্র জানায়, এ বছর জেলার দুই লাখ ৬৩ হাজার ৭৮০ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছিল। ফলনও ভালো হয়েছিল। সম্প্রতি গরম হাওয়ায় জেলার প্রায় দুই হাজার ৬৩০ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে।

এই বিষয়ে চাইলে কৃষকরা জানায়, ৯০ শতাংশ জমিতে ধান চাষ করেছিলাম। ৯০ শতাংশ জমিতে যে পরিমাণ ধান পাওয়ার কথা ছিল। তার মধ্যে তিন ভাগের একভাগ ধানও পাব না। প্রতি ১০ শতাংশে জমির মালিককেই দিতে হবে দুই হাজার টাকা। ঋণ করে ধানের আশায় চাষ করেছিলাম। এখন আবার ঋণ করে জমির মালিককে ভর্তুকি দিতে হবে।

এ বিষয়ে গৌরীপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা লুৎফুর নাহার লিপি বলেন,উপজেলায় চলতি বোরো মৌসুমে ১০টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভাসহ ২০ হাজার ৬ শ’ ১০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষ করা হয়েছিল। যা গত বছরের তুলনায় বেশি জমিতে বোরো ধান চাষ হয়। ক্ষতির বিষয়টি আমাদের উর্ধতন কতৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের পরিচালক মো. মতিউজ্জামান বলেন, ক্ষতির কারণ অনুসন্ধানে বিশেষজ্ঞ দল মাঠ পর্যায়ে পরিদর্শন করবেন। তবে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে গরম বাতাসে ধানের রেনুগুলো ঝড়ে পড়েছে। ফ্যাকাসে ধারণ করেছে। অচিরেই ক্ষতির পরিমাণ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। পরে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী কৃষকের ক্ষতির বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।

কালের আলো/এমএইচএস/এসএস

Print Friendly, PDF & Email