শহীদের রক্ত কখনো বৃথা যায় না, যেতে পারে না: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ 9:38 pm | February 22, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, স্বাধীনতার সুফল আমরা প্রতিটি মানুষের কাছে পৌঁছে দেব। দেশকে ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত, প্রত্যেক মানুষের জীবনকে উন্নত ও অর্থবহ করবো- একটি মানুষও গৃহহীন না, প্রত্যেকের ঘরে আলো জ্বালাবো- এটাই হচ্ছে আমাদের অঙ্গীকার।

সোমবার(২২ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের আলোচনায় গণভবন থেকে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা।

ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর ভূমিকা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি শুধু মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক নন; ভাষা সংগ্রামের শুরু থেকে সক্রিয় ছিলেন জাতির পিতা। বাংলাকে রাষ্ট্রভাষার মর্যাদা দিতে হবে—এ দাবি কিন্তু তিনিই (বঙ্গবন্ধু) প্রথম করেছিলেন।’

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দেশ হেঁটেছে পেছনের দিকে, টানা ২১ বছর যারাই ক্ষমতাসীন ছিল মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন না করে নিজেদের ভাগ্যউন্নয়ন করেছে সবাই।

একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী জানান, ১৯৯৬-২০০১ এবং ২০০৯ থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ১০ লাখ মানুষকে জমি ও ঘর নির্মাণ করে দিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘একটি মানুষও ঠিকানাহীন থাকতে পারবে না, একটি মানুষও গৃহহারা থাকবে না, এটাই আমাদের লক্ষ্য।’

ভাষা দিবসের আলোচনায় নিজস্ব সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্য রক্ষার তাগিদ দেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় বৈশ্বিক মহামারি করোনা মোকাবিলায় সবাইকে টিকা নেওয়ার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনারা সবাই টিকা নিবেন। টিকা নিলেও স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে চলতে হবে। মাস্ক পরতে হবে। সবাইকে সুরক্ষিত রাখার ব্যবস্থাও রাখতে হবে। এ কারণে যে এটার কার্যকারিতা কতটুকু, কী; এটা গবেষণা পর্যায়েই আছে। তবু অন্তত মানুষকে সুরক্ষা দিচ্ছে। কিন্তু সুরক্ষা দিলেও নিজেকে আরও সুরক্ষিত করতে হবে। কারণ এটার দ্বিতীয় ডোজ এখনো বাকি আছে।’

কালের আলো/এনএল/পিএম

Print Friendly, PDF & Email