সামুদ্রিক সম্পদ অন্বেষন এবং সহযোগিতা বৃদ্ধির ওপর বিশেষ গুরুত্ব এনডিসি কমান্ড্যান্ট’র

প্রকাশিতঃ 7:50 pm | June 11, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

ভারত মহাসাগর অঞ্চলের জটিল চ্যালেঞ্জসমূহ মোকাবিলা এবং সুযোগগুলো কাজে লাগিয়ে ইন্ডিয়ান ওশেন রিম এসোসিয়েশন (আইওআরএ) এর মাধ্যমে সামুদ্রিক সম্পদ অন্বেষন এবং সহযোগিতা বৃদ্ধির ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের (এনডিসি) কমান্ড্যান্ট লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোঃ সাইফুল আলম।

তিনি বলেন, সহযোগিতামূলক প্রচেষ্টা এবং বহুপাক্ষিক সমঝোতার মাধ্যমে ইন্ডিয়ান ওশান রিম এসোসিয়েশন (আইওআরএ) এর সমস্ত সদস্য রাষ্ট্রের জন্য টেকসই উন্নয়ন, সামুদ্রিক নিরাপত্তা এবং সমৃদ্ধিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখতে পারে। বর্তমান ও ভবিষ্যত প্রজন্মের কল্যানে সমুদ্রের অপার সম্ভাবনাকে কাজে লাগানোর বিষয়ে দূরদৃষ্টি প্রদান ও বাস্তবমুখী পদক্ষেপ গ্রহণে সেমিনারের আলোচনা বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

মঙ্গলবার (১১ জুন) মিরপুর সেনানিবাসে অবস্থিত ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ (এনডিসি) অডিটোরিয়ামে এনডিসি আয়োজিত সমসাময়িক জাতীয় পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াবলির ওপর গবেষণার ধারাবাহিকতায় ‘এক্সপ্লোরিং মেরিন রিসোর্সেস এন্ড ফস্টারিং কোঅপারেশন ইন মেরিটাইম ট্রেড, সিকিউরিটি এন্ড সেফটি থোরো আইওআরএ’ শীর্ষক দিনব্যাপী সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি সেমিনারটির উদ্বোধন করেন। দেশের জাতীয় অর্থনীতির সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ততার কথা বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী আলোচ্য বিষয়টির ওপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করেন।

সেমিনারে সাবেক সচিব ও রাষ্ট্রদূত এবং বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সদস্য এম শামীম আহসান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মাদ মুসা, পরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিটের সচিব রিয়ার এডমিরাল মোঃ খুরশেদ আলম ও ইন্ডিয়ান ওশেন রিম বিজনেস ফোরামের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে ফাহিম সেমিনারে রিসোর্স পার্সন হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স-২০২৪ এর কোর্স সদস্যদের একটি দল মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

আন্ত:বাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) জানায়, বঙ্গবন্ধু ১৯৭৪ সালেই ‘টেরিটোরিয়াল ওয়াটার ও মেরিটাইম জোন এ্যাক্ট, ১৯৭৪’ প্রস্তুত করেন এবং এর প্রায় ৮ বছর পর জাতিসংঘ কর্তৃক ‘কনভেশন অন দি ল অব দি সি, ১৯৮২’ প্রবর্তিত হয়। ফলে বঙ্গবন্ধুর প্রজ্ঞা ও দূরদৃষ্টির মাধ্যমেই বাংলাদেশের সামুদ্রিক নিরাপত্তা ও উন্নয়নের প্রচেষ্টার সূত্রপাত হয়।

ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের (এনডিসি) কমান্ড্যান্ট লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোঃ সাইফুল আলম একটি সমসাময়িক বিষয়ে গভীরভাবে অধ্যয়ন এবং তাদের ফলাফল উপস্থাপনের জন্য মূল বক্তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সেমিনারে এনডিসির ফ্যাকাল্টি, কোর্স মেম্বার ও স্টাফ অফিসারগণ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, সার্ভিসেস হেডকোয়ার্টার, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস, ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড এন্ড স্টাফ কলেজ, মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল এন্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ ও বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

কালের আলো/এমএএএমকে 

 

Print Friendly, PDF & Email