ঢাকাসহ সকল সেনানিবাসে বঙ্গবন্ধু’র জন্মবার্ষিকী উদযাপন

প্রকাশিতঃ 10:43 pm | March 17, 2024

কালের আলো রিপোর্ট :

যথাযোগ্য মর্যাদা ও উৎসাহ-উদ্দীপনার সাথে একযোগে ঢাকাসহ দেশের সকল সেনানিবাস ও বৈদেশিক মিশনে অবস্থানরত কন্টিনজেন্টসমূহে উদযাপিত হয়েছে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ১০৪তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস। রোববার (১৭ মার্চ) দিবসটি উদযাপনে সেনাবাহিনীর সকল স্তরের সামরিক এবং অসামরিক ব্যক্তিবর্গের অংশগ্রহণে বিবিধ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

আন্ত:বাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) জানায়, এদিন প্রত্যুষে ধানমন্ডি ৩২ নম্বর রোডে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুস্পস্তবক অর্পনকালে সেনাবাহিনীর ৪৬ স্বতন্ত্র পদাতিক ব্রিগেড এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় আন্তঃবাহিনী গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। পরে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিসৌধে রাষ্ট্রপতি মো.সাহাবুদ্দিন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুস্পস্তবক অর্পণকালে ৫৫ পদাতিক ডিভিশন এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় আন্তঃবাহিনী গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।

এ সময় সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল এম নাজমুল হাসান, বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল শেখ আব্দুল হান্নান, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার (পিএসও) লেফটেন্যান্ট জেনারেল মিজানুর রহমান শামীম ও সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে ঢাকাসহ সকল সেনানিবাসের প্রতিটি প্রবেশ পথ এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাসমূহ সুসজ্জিত করা হয়। ঢাকাসহ সকল সেনানিবাস এবং বৈদেশিক মিশনে অবস্থানরত কন্টিনজেন্টসমূহে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জীবনীর উপর আলোচনা অনুষ্ঠান, ‘৭ই মার্চের ভাষণ’ এবং ‘আমাদের বঙ্গবন্ধু’ প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনের আয়োজন করা হয়। এ সময় ঢাকা সেনানিবাসের সেনাকুঞ্জে আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান। এ দিনে জাতির পিতার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে সেনানিবাসসমূহের সকল মসজিদে বাদ জুম’আ বিশেষ দোয়া ও মোনাজাতের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অফিসার, জেসিও, অন্যান্য পদবির সেনাসদস্য এবং অসামরিক ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া সেনাবাহিনী পরিচালিত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাতির পিতার জীবনীর উপর আলোচনা সভা, রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

কালের আলো/ডিএস/এমএম

Print Friendly, PDF & Email