পায়রায় দৃষ্টিনন্দন চার লেন বিশিষ্ট ডোজ ক্যাবল সেতুর পাইলিং শুরু

প্রকাশিতঃ 7:07 pm | March 12, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

দেশের তৃতীয় ও স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম নদী বন্দর পায়রায় আন্দারমানিক নদীর ওপর দৃষ্টিনন্দন চার লেন বিশিষ্ট এক্সট্রা ডোজ ক্যাবল সেতুর পাইলিং শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) দুপুরে পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল আবদুল্লাহ আল মামুন চৌধুরী এ সেতুর পাইলিং কাজ উদ্বোধন করেন।

আন্দারমানিক নদীর নাব্য এবং সার্বক্ষণিক জাহাজ চলাচল ও জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনায় রেখে মূল নদীতে মাত্র দুটি পিলার স্থাপন করে এক্সট্রা ডোজ ক্যাবলের মাধ্যমে এ সেতুটু নির্মাণ করা হবে। এতে নদীর নাব্য রক্ষা ও পানি প্রবাহ ঠিক থাকবে।

চুক্তি মোতাবেক চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে ব্রিজ কনস্ট্রাকশন গ্রুপ (সিআরবিজি) এবং চায়না সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্টিটিউশন কর্পোরেশন (সিসিইসিসি) আগামী ২০২৬ সালের ফেব্রুয়ারির মধ্যে সেতুর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করবে।

পায়রা বন্দরের প্রথম টার্মিনাল ও আনুষঙ্গিক সুবিধাদি নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৯৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হবে এ সেতু। এ সেতুটি বন্দরের প্রধান টার্মিনাল ও ছয় লেন সড়ককে সংযুক্ত করবে।

নির্মাণ শেষ হলে সেতুটির মাধ্যমে ঢাকা-কুয়াকাটা মহাসড়কে সঙ্গে পায়রা বন্দরের সরাসরি যোগাযোগের ব্যবস্থা হবে। সেই সঙ্গে পায়রা বন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম দ্রুত ও সহজ হবে। বন্দরের বাণিজ্যিক কার্যক্রমে ব্যাপক গতি সঞ্চার হবে।

কোরিয়ান পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে একটি অত্যন্ত দৃষ্টিনন্দন ও আইকনিক সেতু হবে এটি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের ডিআইএসএফ প্রকল্প পরিচালক ক্যাপ্টেন মনিরুজ্জামান, বন্দরের চিফ হাইড্রোগ্রাফার কমান্ডার মাহমুদুল হাসান খান, ট্রাফিক বিভাগের পরিচালক আতিকুল ইসলাম, বোর্ড পরিচালক আব্বাস উদ্দীন, পরিচালক বোর্ড, পিপিএফটি প্রকল্প পরিচালক মো. নাসির উদ্দীন, হারবার মাস্টার ক্যাপ্টেন শরিফুর রহমান, ট্রাফিক বিভাগের উপপরিচালক মো. আজিজুর রহমানসহ বন্দরের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ, পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা।

কালের আলো/ডিএস/এমএম

Print Friendly, PDF & Email