উপেক্ষিত আদালতের আদেশ; এনভয় টেক্সটাইলের এমডি পদে তানভীর আহমেদকে বিতর্কিত নিয়োগ

প্রকাশিতঃ 8:03 pm | March 02, 2024

বিশেষ সংবাদদাতা, কালের আলো:

উচ্চ আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে এনভয় টেক্সটাইল লিমিটিডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) পদে এক বিতর্কিত নিয়োগকে ঘিরে তোলপাড় শুরু হয়েছে। শনিবার (০২ মার্চ) রাজধানীর গুলশানের শুটিং ক্লাবে সংশ্লিষ্ট টেক্সটাইল লিমিটিডের একটি বিশেষ সাধারণ সভায় তানভীর আহমেদকে পদটিতে নিয়োগ প্রদানকে ঘিরে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ তৈরি হয়েছে।

জানা যায়, গত বছরের ২৬ জুলাই ও ১৩ নভেম্বর বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে পৃথক দুটি অফিস আদেশে কোম্পানী আইনের ১০৯ ধারা উল্লেখ করে তানভীর আহমেদকে এনভয় টেক্সটাইল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পাশাপাশি আরও ৩৯ টি প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে এবং স্পেন-বাংলাদেশ এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এবং ফুড যোন লিমিটেড’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে কার্যক্রম পরিচালনার অনুমতি দেয়া হয়। অথচ এনভয় টেক্সটাইল লিমিটিডের শেয়ারহোল্ডার সৈয়দ মোঃ নুরুল আমিন চলতি বছরের বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) তানভীর আহমেদ ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্যদের বিবাদী করে, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অফিস আদেশসমূহের কার্যকারিতা চ্যালেঞ্জ জানিয়ে উচ্চ আদালতে একটি রিট পিটিশন (নং-২৪৮১/২০২৪) দায়ের করেন।

আদালত সূত্র জানায়, শুনানি শেষে রিট পিটিশনটি আমলে নিয়ে মহামান্য হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এই বছরের ২৯ ফেব্রুয়ারি একটি রুল নিশি জারি করেন। একই সঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে তাদের গত ২৬ জুলাই ও ১৩ নভেম্বর ইস্যুকৃত অফিস আদেশসমূহকে- যাহা কোম্পানী আইনে ১৯৯৪ এর ১০৯ ধারার পরিপন্থী হওয়ায় কেন বেআইনী ও বাতিল বলে গণ্য হবে না তার জবাব প্রদানে নির্দেশ প্রদান করেন। ওই ডিভিশন বেঞ্চ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অফিস আদেশসমূহের কার্যকরিতা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করে।

রিট মামলায় সৈয়দ মোঃ নুরুল আমিনের আইনজীবী সাঈদ আবদুল্লাহ আল মামুন খান শনিবার (০২ মার্চ) এ বিষয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলেছেন। তিনি বলেন, ‘যেহেতু উচ্চ আদালত গত বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের অফিস আদেশসমূহের কার্যকরিতা স্থগিত করেছেন, তাই তানভীর আহমেদ কোম্পানী আইনের ১০৯ ধারা অনুযায়ী এই মুহূর্তে কোন পাবলিক লিমিটেড কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে অধিষ্ঠিত হওয়ার সুযোগ নাই।’

তিনি বলেন, ‘যেহেতু তানভির আহমেদ এই মুহূর্তে ৪১টি কোম্পানির (যাহা একক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচালিত হচ্ছে না) ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে অধিষ্ঠিত আছেন সেহেতু কোম্পানি আইনের ১০৯ (২) ধারা অনুযায়ী সরকার কর্তৃক অনুমতি সাপেক্ষে এনভয় টেক্সটাইলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে অধিষ্ঠিত হতে পারবেন। উচ্চ আদালতের রায় পাওয়ার পর আমরা এনভয় টেক্সটাইলের চেয়ারম্যান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও কোম্পানী সেক্রেটারীকে বিষয়টি অবহিত করি। তারপরও তারা বিষয়টি উপেক্ষা করে ও শেয়ারহোল্ডারদের কাছে গোপন রেখে শনিবার (০২ মার্চ) ইজিএম করে তানভির আহমেদকে ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে নিয়োগ দিয়েছেন। যেটি কোম্পানি আইনের ১০৯ ধারার পরিপন্থী।’

প্রসঙ্গত, উচ্চ আদালতের আদেশ উপেক্ষার ঘটনায় গত বছরের ৭ আগস্ট বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি মো. আমিনুল ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ শুনানিতে হাইকোর্ট বলেছিলেন, উচ্চ আদালতকে অমান্য ও উপেক্ষা করে কোনো মানুষ ভালো থাকতে পারে না। কোনো দেশের মানুষ উচ্চ আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে টিকে থাকতে পারে না। এটি ব্যক্তিগত কোনো বিষয় নয়, বিষয়টি চেয়ারের।’

কালের আলো/আরআই/এমকে

Print Friendly, PDF & Email