সৃষ্টিশীল ও মননশীল ডিসপ্লে ‘ঘুরে আসি বাংলাদেশ’; শিক্ষার্থীদের আধুনিক বিশ্বের চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার পরামর্শ সিজিএস’র

প্রকাশিতঃ 9:19 pm | January 29, 2024

বিশেষ সংবাদদাতা, কালের আলো:

৫৬ হাজার বর্গমাইলের বাংলাদেশ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপরূপ এক লীলাভূমি। সবুজ শ্যামল প্রকৃতিতে জুড়িয়ে যায় দু’চোখ। দেশটির ইতিহাসও সমৃদ্ধ। বাঙালি জাতির চির আরাধ্য পুরুষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হিরণ্ময় নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধ বিজয়ের গৌরবগাথাকে বুকে ধারণ করেই মুজিবকন্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে অদম্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশটি। এসবই ওঠে এসেছে সোমবার (২৯ জানুয়ারি) ঢাকা সেনানিবাসস্থ নির্ঝর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের আন্তঃহাউস বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ‘ঘুরে আসি বাংলাদেশ’ শীর্ষক একটি নান্দনিক ডিসপ্লেতে।

শুধু তাই নয়, প্রবহমান নদীর মতো বহমান আবহমান বাংলার সংস্কৃতি ও প্রকৃতি- সবকিছুই ঠাঁই করে নেয় মনোজ্ঞ ডিসপ্লেতে। সৃষ্টিশীল ও মননশীলতার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশের মনোরম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য, সমৃদ্ধি, ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সাংস্কৃতিক পরিচয় নিখুঁতভাবে ফুঁটিয়ে তোলায় নিজের মুগ্ধতা প্রকাশ করেন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান। রূপমুগ্ধ ও বিস্ময়-পুলকিত ডিসপ্লে উপভোগ করেন সিজিএস’র জীবনসঙ্গী, বিশেষ অতিথি সারাহনাজ কমলিকা জামান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য আমন্ত্রিত অতিথিরা শিক্ষার্থীদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উপভোগ করেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান শিক্ষার্থীদের আধুনিক বিশ্বের চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার পরামর্শ দেন। তিনি শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার পাশাপাশি বিভিন্ন সহশিক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ, চারিত্রিক বিকাশ এবং মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন নাগরিক হিসেবে গড়ে ওঠার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান শিক্ষার্থীদেরকে আলোকিত মানুষ ও প্রকৃত দেশপ্রেমিক হওয়ারও পরামর্শ দেন। এছাড়াও তিনি প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীদের একাডেমিক ফলাফল ও শৃঙ্খলার মানের ভূয়সী প্রশংসা করেন। প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষাগত দক্ষতা ও উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখা এবং উত্তরোত্তর সমৃদ্ধির বিষয়েও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে নির্ঝর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো.জুবায়ের রহমান আখন্দ, সামরিক ও অসামরিক কর্মকর্তা, শিক্ষক-শিক্ষিকা, অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

কালের আলো/এমএএএমকে

Print Friendly, PDF & Email