দলীয় প্রতীক না থাকলে স্থানীয় সরকার নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে: ইসি

প্রকাশিতঃ 5:14 pm | January 24, 2024

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, কালের আলো:

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের রেশ কাটতে না কাটতেই স্থানীয় সরকারের সিটি করপোরেশন, জেলা পরিষদ, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ ও বিভিন্ন শূন্যপদে উপ-নির্বাচনের পূর্ণাঙ্গ তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এসব নির্বাচনে দলীয় প্রতীক না থাকলে আরও বেশি অংশগ্রহণমূলক হবে বলে মনে করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বুধবার (২৪ জানুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব জাহাংগীর আলম এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আগামী ৯ মার্চ একই দিনে ২৩৩টি নির্বাচনে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলবে। তবে জেলা পরিষদের ভোটের ক্ষেত্রে সময়সূচি কিছুটা ভিন্ন থাকবে। অন্যদিকে সিটি করপোরেশন, পৌরসভা, জেলা পরিষদের সাধারণ নির্বাচন হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। বাকিগুলোতে ভোট হবে ব্যালটে।

জাহাংগীর আলম বলেন, নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের আলোকে আগামী ৯ মার্চ সাধারণ ও উপ-নির্বাচন মিলিয়ে ২২৩টি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে সিটি করপোরেশন একটি, সিটি করপোরেশনের শূন্যপদে চারটি, পৌরসভার সাধারণ পদে তিনটি, পৌরসভার শূন্যপদে উপ-নির্বাচন ১৫টি, ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচন ১৩টি এবং ১৯০টি বিভিন্ন শূন্যপদে উপ-নির্বাচন, জেলা পরিষদের শূন্যপদে নির্বাচন ৭টি- সবমিলিয়ে ২৩৩টি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

দেশের দ্বাদশ সিটি করপোরেশন হিসেবে গেজেট প্রকাশের পর ২০১৯ সালের ৫ মে ময়মনসিংহে প্রথম নির্বাচন হয়। নিয়ম অনুযায়ী এই সিটি ভোটের ক্ষণগণনা শুরু হয়েছে গত বছরের ২০ ডিসেম্বর। চলতি বছর ১৯ জুনের মধ্যে যা শেষ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

অন্যদিকে, ২০২২ সালের ১৫ জুন কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত। তবে গত ১৩ ডিসেম্বর তার মৃত্যু হয়। ফলে মেয়র পদে উপনির্বাচন করতে হচ্ছে নির্বাচন কমিশনকে।

ইসি সচিব বলেন, ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই ২৩৩টি নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ১৩ ফেব্রুয়ারি। মনোনয়ন যাচাই-বাছাই ১৫ ফেব্রুয়ারি। রিটার্নিং অফিস থেকে বাতিল হওয়া প্রার্থিতার আপিল নিষ্পতি করা হবে ১৯ ও ২০ ফেব্রুয়ারি। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২২ ফেব্রুয়ারি। প্রতীক বরাদ্দ ২৩ ফেব্রুয়ারি। আর ৯ মার্চ সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ।

৯ মার্চ সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলবে জানিয়ে ইসি সচিব বলেন, জেলা পরিষদের নির্বাচনটা একটু ভিন্ন হবে। যারা স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত প্রতিনিধি তারাই ভোট দেবেন। সেক্ষেত্রে সময়সূচি ভিন্ন হবে। সিটি করপোরেশন, পৌরসভা, জেলা পরিষদের সাধারণ নির্বাচন ও উপ-নির্বাচনের ক্ষেত্রে ভোট হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। বাকি নির্বাচনগুলোতে স্বচ্ছ ব্যালট বক্সে এবং ব্যালট পেপারের মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ইসি সচিব বলেন, ময়মনসিংহ সিটির সাধারণ নির্বাচনে সংশ্লিষ্ট আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করবেন। ৭ জন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা তাকে সহায়তা করবেন। কুমিল্লার মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা থাকবেন কুমিল্লার আঞ্চলিক জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা।

পটুয়াখালী পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন জামালপুরের বকশীগঞ্জ পৌরসভার ও বরগুনার আমতলী পৌরসভায় সাধারণ নির্বাচন হবে। এছাড়া পাঁচটি পৌরসভার শূন্যপদে উপ-নির্বাচন হবে। সবমিলিয়ে ২৩৩টি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে।

এদিকে মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের এক চিঠিতে বলা হয়, কুমিল্লা সিটির সীমানা নির্ধারণ চলমান। এই কার্যক্রম চূড়ান্ত হওয়ার পর মেয়রের শূন্যপদে উপ- নির্বাচনের আয়োজনের ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

কুমিল্লা সিটির মেয়র পদে উপ-নির্বাচন নিয়ে কোনো জটিলতা আচ্ছে কি না জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, কুমিল্লা নিয়ে জটিলতা আছে কি না সেটা আসলে আইন বলতে পারবে। এরই মধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে একটি পত্র পেয়েছি। কমিশনে সেটা উথাপন করা হবে। কমিশনের সিদ্ধান্তের বিষয়ে যদি কিছু হয় পরবর্তীতে জানানো হবে।

প্রতীক ছাড়া উপজেলা ভোটের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ইসি সচিব বলেন, এটা রাজনৈতিক দলগুলোর সিদ্ধান্তের বিষয়। স্থানীয় সরকারের নির্বাচনে সত্যিকার অর্থে সবাই অংশগ্রহণ করে। প্রতীক না থাকলে আরও বেশি পার্টিসিপেটরি হবে বলে আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি।

কালের আলো/এমএইচ/এসবি

Print Friendly, PDF & Email