ধর্মের নামে কেউ যেন বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে না পারে: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ 2:25 pm | January 16, 2023

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

ধর্ম নিয়ে আর কেউ যেন কোনোরকম বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য মসজিদের খতিব, ইমামসহ শিক্ষক-অভিভাবকদের সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, সমাজের যেসব অঙ্গতি রয়েছে, যেমন- মাদকাসক্তি, বাল্য বিবাহ, নারী নির্যাতন, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ইত্যাদি দূরীকরণে ইমাম ও খতিবরা তাদের বয়ান বা খুতবায় এসব বিষয়ে তুলে ধরবেন। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ থেকে যেন প্রত্যেকের ছেলে মেয়েরা দূরে থাকে। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ইসলামের সম্মান নয় বরং বদনাম। এসব বিষয়ে সচেতনতার সৃষ্টির ক্ষেত্রে আপনারা বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারেন।

সোমবার (১৬ জানুয়ারি) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে সারাদেশে ৫০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকারপ্রধান বলেন, আমরা চাই, এদেশে প্রতিটি মানুষ যেন নিরাপদে তাদের ধর্ম পালন করতে পারে, এটাই ইসলামের শিক্ষা।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র করছি, ইসলাম ধর্ম যাতে আরও উন্নতভাবে পালন করতে পারে। ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা যাতে পায়। ইসলামের মূল্যবোধের প্রচার ও প্রসার যাতে ঘটে।

এ সময় ইমাম-মুয়াজ্জিনসহ ধর্ম প্রচারের সরকারি উদ্যোগ তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, আমরা যেন সঠিক পথে দেশকে এগিয়ে নিতে পারি, সে চেষ্টা করছি।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ২০১৮ সালের ২৬ জুন সারাদেশে মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র করার প্রকল্প অনুমোদিত হয়। এ প্রকল্পের আওতায় সারাদেশে ৫৬৪টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক গড়ে তোলা হবে।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email