গত বছর ১৫৬৫ কোটি টাকার চোরাই পণ্য জব্দ করেছে বিজিবি

প্রকাশিতঃ 8:15 pm | January 10, 2023

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

২০২২ সালে অভিযানে ১ হাজার ৫৬৫ কোটি ৫৪ লাখ ৩৬ হাজার টাকা মূল্যের বিভিন্ন প্রকারের চোরাচালান পণ্য, মাদকদ্রব্য এবং অস্ত্র ও গোলাবারুদ জব্দ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে বিজিবির জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, ২০২২ সালে দেশের সীমান্ত এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১ কোটি ২৭ লাখ ৭৮ হাজার ১০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৩ লাখ ১৬ হাজার ১৫৭ বোতল ফেনসিডিল, ৭৭ কেজি ৬৯০ গ্রাম ক্রিস্টাল মেথ আইস, ১ লাখ ৮২ হাজার ৯৩২ বোতল বিদেশি মদ, ৩৭ হাজার ১২৬ ক্যান বিয়ার, ৪ হাজার ৬৪ লিটার বাংলা মদ, ২৮ হাজার ৬৭২ কেজি গাঁজা, ৪ লাখ ৯৮ হাজার ৭৫৪টি নেশা জাতীয় ও উত্তেজক ইনজেকশন, ৭২ কেজি ১৫৯ গ্রাম হেরোইন, ৬ লাখ ৫৫ হাজার ৯৪০টি এ্যানেগ্রা ট্যাবলেট, ১৩ কেজি ৪২৫ গ্রাম আফিম, ৭৬ হাজার ৫৬১টি ইস্কাফ সিরাপ, ৮৪ লাখ ৫৫ হাজার ৫৬২টি বিভিন্ন প্রকার ওষুধ, ১৩ হাজার ৫৬২ বোতল এমকেডিল এবং ২৮ লাখ ১০ হাজার ৬৩টি অন্যান্য ট্যাবলেট জব্দ করা হয়।

শরিফুল ইসলাম জানান, চোরাচালান দ্রব্যের মধ্যে রয়েছে ১৯৪ কেজি ৯৯৩ গ্রাম স্বর্ণ, ২৭৯ কেজি ১৬২ গ্রাম রুপা, ৫৯ হাজার ৯৩৯টি থ্রি পিস, ১ লাখ ৫৭ হাজার ৩০৯টি শাড়ি, ২১ হাজার ৬৮টি তৈরিপোশাক, ২১ লাখ ৫৫ হাজার ৯৪টি কসমেটিক সামগ্রী, ৪ হাজার ১৪১ মিটার থান কাপড়, ৩০ হাজার ৬৯৫ ঘনফুট কাঠ, ৬ লাখ ২১ হাজার ১৩ কেজি কয়লা, ৭৩ হাজার ১৭৬ কেজি চা পাতা, ৩৫ হাজার ২২৩ ঘনফুট পাথর, ৩১টি কষ্টি পাথরের মূর্তি, ১ লাখ ২৫ হাজার ৭৫০টি ইমিটেশন গহনা, ১ হাজার ৬৯৯ কেজি কারেন্ট জাল, ৭৩টি ট্রাক, ৪৪টি প্রাইভেটকার, ১৫২ কেজি ৫০০ গ্রাম কচ্ছপের হাড়, ১০৬টি পিকআপ, ৩৪০টি সিএনজি এবং ৮২৪টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।

অভিযানে উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে, ৪৬টি পিস্তল, ৯টি রাইফেল, পাঁচটি রিভলবার, ৭৯টি বিভিন্ন প্রকার গান, ৫ হাজার ৩৪৫ রাউন্ড গোলাবারুদ, ২৫টি ম্যাগজিন, ২৪টি মর্টার শেল, একটি আর্টিলারি বোমা, ২০টি ককটেল, ৪৫টি শিশা, ৫১টি খালি খোসা এবং ৯৯৯ কেজি ৬০০ গ্রাম বিস্ফোরক সদৃশ বস্তু।

অভিযানে ২০২২ সালে ইয়াবাসহ বিভিন্ন প্রকার মাদকপাচার ও অন্যান্য চোরাচালানে জড়িতদের গ্রেপ্তারের বিষয়ে বিজিবি জানায়, মাদকপাচার ও অন্যান্য চোরাচালানের অভিযোগে ২ হাজার ৯৫৩ জনকে এবং অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের দায়ে ২ হাজার ৮৫ জন বাংলাদেশি নাগরিক ও ১১৭ জন ভারতীয় নাগরিককে আটকের পর তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

কালের আলো/বিএএ

Print Friendly, PDF & Email