শেখ হাসিনার আস্থায় ‘একের ভেতর পাঁচ’ ডা. দীপু মনি

প্রকাশিতঃ 5:39 am | December 26, 2022

বিশেষ সংবাদদাতা, কালের আলো:

ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের ২২তম জাতীয় সম্মেলনে পুরনো ও অভিজ্ঞ নেতৃত্বের ওপরেই আস্থা রেখেছেন দলীয় সভাপতি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন একেবারে ঘনিয়ে আসায় দলে বড় পরিবর্তন আনেননি। ওবায়দুল কাদেরকে আওয়ামী লীগের ৭৩ বছরের ইতিহাসে টানা তৃতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দিয়েছেন। ডা: মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনকে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বা আমিনুল ইসলাম আমিনকে উপ-প্রচার সম্পাদক পদ থেকে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও ছোট ছোট পরিবর্তন ঘটলেও সম্মেলনে রীতিমতো আলো কেড়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি। তিনি টানা ৫ বার আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন। একই কৃতিত্ব রয়েছে কেবল দলটির আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবউল আলম হানিফের।

সূত্র জানায়, এবারের জাতীয় সম্মেলনে আরও দুটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পেয়েছেন ওয়ান ইলেভেনে রাজনীতির কঠিন দু:সময়েও আদর্শচ্যুত না হয়ে শেখ হাসিনা মুক্তি আন্দোলনকে সম্মুখে থেকে ত্বরান্বিত করা ডা: দীপু মনি। আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড ও দলটির স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য হয়েছেন তিনি। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী দুটি বোর্ডের সভাপতি আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী নিজেই বোর্ড সদস্যদের নাম ঘোষণা করেছেন।

জানা যায়, আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডে মোট ১০ সদস্যের একজন হলেন দীপু মনি। এখানে আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ, কাজী জাফর উল্যাহ, ওবায়দুল কাদেরের মতো হেভিওয়েট নেতারা রয়েছেন। এই বোর্ডে দলীয় চার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে একমাত্র দীপু মনিই ঠাঁই পেয়েছেন। এই বোর্ডে দলটির অনেক প্রভাবশালী প্রেসিডিয়াম সদস্যেরও জায়গা হয়নি। অর্থাৎ, দলীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা: দীপু মনি আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রগাঢ় আস্থায় রয়েছেন।

রাজনীতিতে তার সততা ও সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে দক্ষ নেতৃত্বগুণে মুগ্ধ হয়েই বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা দীপু মনিকে বিশেষভাবে মূল্যায়ন করেছেন। তাকে দলের অন্যতম নীতি নির্ধারণী পর্যায়ে ঠাঁই দিয়েছেন। দলে প্রভাবশালী অবস্থানের পাশাপাশি দেশের প্রথম নারী শিক্ষামন্ত্রী হিসেবে সাফল্যের সঙ্গেই নেতৃত্ব দিচ্ছেন। সদর ও হাইমচর উপজেলা নিয়ে গঠিত চাঁদপুর-৩ আসন থেকে সংসদ সদস্য হিসেবেও হ্যাটট্রিক করেছেন। আসনটিকে নৌকার শক্ত ঘাঁটিতে রূপ দিয়েছেন। দল এবং সরকারে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দক্ষতার সঙ্গে সামাল দিচ্ছেন দীপু মনি।

এসবের মধ্যে দিয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে যেন নিজেকে অস্পর্শনীয় এক উচ্চতায় নিয়ে গেছেন দীপু মনি। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে তাকে বলা হচ্ছে, ‘ফাইভ ইন ওয়ান’ বা ‘একের ভেতর পাঁচ’। নিজের মেধা, পরিশ্রম, সততা ও যোগ্যতা দিয়েই তিনি বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার মন জয় করেছেন। কাজের মাধ্যমেই তিনি দলীয় সভাপতির আস্থাভাজন হয়েছেন, বলছিলেন দলটির মাঠ পর্যায়ের একাধিক নেতা।

কঠিন লড়াই-সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহযোগী ভাষাবীর এম এ ওয়াদুদের কন্যা ডা: দীপু মনি রাজনীতির পাদপ্রদীপে উঠে এসেছেন। ওয়ান ইলেভেনের ঝড়ের মুখেও শেখ হাসিনার মুক্তি আন্দোলনে মোটা দাগে ভূমিকা রেখেছেন। আদর্শিক, মানসিক দৃঢ়তা নিয়েই পথ চলেছিলেন। পুরস্কারও পেয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর আস্থা অর্জন করে বিশ্বাসের মর্যাদা রেখেছেন কর্মগুণে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নে বিশুদ্ধ রক্তের উত্তরাধিকার ডা: দীপু মনি যেন— কবিগুরুর ভাষায় বলতে হয় ‘আলোর নৌকা ভাসিয়ে দিয়েছেন আকাশপানে চেয়ে।’

কালের আলো/এমএএএমকে

Print Friendly, PDF & Email