গাজায় শরণার্থী শিবিরে আগুনে ১০ শিশুসহ নিহত ২১

প্রকাশিতঃ 9:55 am | November 18, 2022

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, কালের আলো:

ফিলিস্তিনের অধিকৃত পশ্চিম তীরের গাজা উপত্যকায় ঘনবসতিপূর্ণ শরণার্থী শিবিরের একটি ভবনে আগুন লেগে ১০ শিশুসহ কমপক্ষে ২১ জন নিহত হয়েছেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের ওই আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। জাবালিয়া শরণার্থী শিবির গাজা উপত্যকার আটটি শিবিরের একটি। প্রাথমিক তদন্তে একটি রান্নাঘর থেকে গ্যাস লিকেজের কারণে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

উত্তর গাজায় ইন্দোনেশিয়া পরিচালিত একটি হাসপাতালের পরিচালক ডা. আবু লায়লা এই আগুনকে ভয়াবহ হিসেবে বর্ণনা করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে আগুন ওই ভবনটির পুরো কাঠামোকে গ্রাস করে ফেলেছে। জলন্ত ভবনের বাইরে মানুষ চিৎকার করছিল, আর বাইরে থাকা ওই ভবনের লোকজনের স্বজনেরা কাঁদছিল ও প্রার্থনা করছিল।

ঘটনাস্থলে ছুটে আসা স্থানীয় একজন অধিবাসী জানান, ভবনটিতে জেনারেটর চালানোর জন্য গ্যাসোলিন মজুদ করে রাখা ছিল। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পরিস্থিতি ছিল খুবই কঠিন, রক্ষা করার কোনো সম্ভাবনা ছাড়াই শিশু ও নারীরা আগুনে পুড়ে যাচ্ছিল।

নিরাপত্তাকর্মীরা জানায়, ওই ভবনে একটি পরিবার বিদেশ থেকে একজন স্বজনের ফিরে আসার অনুষ্ঠান উদযাপন করছিল।

পশ্চিম তীর ভিত্তিক ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস এই ঘটনাকে জাতীয় ট্রাজেডি হিসেবে বর্ণনা করে শুক্রবার একদিনের শোক পালনের ঘোষণা দিয়েছেন।

এদিকে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গান্তজ ঘটনার পর এক টুইট বার্তায় জানান, তার কার্যালয়ের লোকজন আহতদের ইসরায়েলি হাসপাতালে পৌঁছে দিতে মানবিক উদ্ধার তৎপরতায় অংশ নেবে।

গাজা হচ্ছে পৃথিবীর অন্যতম ঘনবসতিপূর্ণ এলাকার একটি যেখানে প্রায় ২৩ লাখ লোক বসবাস করে। জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী গাজার বিভিন্ন আশ্রয় শিবিরে বাস করেন কমপক্ষে ছয় লাখ শরণার্থী।

কালের আলো/এমএম/এএ

Print Friendly, PDF & Email