‘জয়ল্যান্ড’র থেকে পাকিস্তানের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

প্রকাশিতঃ 4:29 pm | November 17, 2022

শোবিজ ডেস্ক, কালের আলো:

অবশেষে আলোচিত সিনেমা ‘জয়ল্যান্ড’র ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে পাকিস্তান সরকার। দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফের নির্দেশে গঠিত একটি রিভিউ কমিটি দ্বারা ছবিটি পুনরায় পর্যালোচনা করা হয়েছে। এরপরই এটিকে মুক্তির অনুমতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বুধবার (১৬ নভেম্বর) রাতে টুইট করে খবরটি নিশ্চিত করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রীর স্ট্র্যাটেজিক রিফর্মসের প্রধান সালমান সুফি।

তিনি বলেছেন, ‘বাকস্বাধীনতা নাগরিকের মৌলিক অধিকার এবং এটিকে আইনের অধীনে চর্চা করা উচিত।’

১৮ নভেম্বর ‘জয়ল্যান্ড’ পাকিস্তানে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিলো। তবে তার কয়েকদিন আগেই দেশটির ১১টি রাজ্যে ছবিটি নিষিদ্ধ করা হয়। সংশ্লিষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অভিযোগ, এই ছবিতে দেশটির সংস্কার বিরোধী গল্প তুলে ধরা হয়েছে।

নিষিদ্ধ করার পরই পাকিস্তান এবং আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে খবর প্রকাশ হয়। চারদিক থেকে প্রতিবাদের আওয়াজ ওঠে। সে কারণে গত মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) আট সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করেন পাক প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ। ওই কমিটির মতে, ছবিটির কিছু অংশ সংশোধন করা প্রয়োজন।

মুক্তির আগে সেন্সর বোর্ডের সমস্ত সদস্যের দ্বারা ‘জয়ল্যান্ড’র রিভিউ সুপারিশ করেছেন তারা। সালমান সুফির ভাষ্য, ‘প্রমাণ ছাড়া কোনও বিষয়ের ওপর নেতিবাচক অনুমান করা ঠিক নয়। সেন্সর বোর্ড এটা পর্যালোচনা করবে এবং মুক্তির বিষয়ে সুপারিশ করবে।’

ধারণা করা হচ্ছে, ছবিটিতে কিছু সংশোধন সাপেক্ষে মুক্তির অনুমতি দিতে পারে পাকিস্তানের চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড।

এদিকে ১৮ নভেম্বর ছবিটি মুক্তি দেওয়ার ব্যাপারে এখনও অপেক্ষায় রয়েছেন পরিবেশক ও হল মালিকরা। তারা নিজ নিজ অবস্থান থেকে প্রচারণাও চালাচ্ছেন। তবে আনুষ্ঠানিক ছাড়পত্র না আসা পর্যন্ত প্রেক্ষাগৃহের পর্দায় ছবিটি প্রদর্শনের সুযোগ নেই।

‘জয়ল্যান্ড’ নির্মাণ করেছেন তরুণ নির্মাতা সাইম সাদিক। এটি পাকিস্তানের প্রথম ছবি হিসেবে বিখ্যাত কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়েছে। শুধু তাই নয়, কান উৎসবের আঁ সার্তে রিগা বিভাগে ছবিটি পুরস্কারও পেয়েছিলো।

এরপর পাকিস্তান থেকে অস্কারে পাঠানোর জন্য নির্বাচিত করা হয় ‘জয়ল্যান্ড’কে। আসন্ন ৯৫তম অস্কারে বিদেশি ভাষার চলচ্চিত্র বিভাগে লড়বে এটি।

এই ছবির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আলি জুনেজা, আলিনা খান, রাস্তি ফারুক, সালমান পীরজাদা, সারওয়াট গিলানি ও সোহেল সমীর।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email