প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ হত্যাচেষ্টায় জড়িত : ইমরান খান

প্রকাশিতঃ 12:17 pm | November 05, 2022

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, কালের আলো:

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান অভিযোগ করে বলেছেন তার উত্তরসূরী শাহবাজ শরীফ তাকে হত্যার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত। শরীরে লাগা গুলির আঘাত থেকে সাময়িকভাবে সেরে ওঠা ইমরান শুক্রবার সাংবাদিকদের জানান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ ও সেনাবাহিনীর একজন সিনিয়র কমান্ডার এই হত্যাচেষ্টার সঙ্গে সরাসরি জড়িত।

বৃহস্পতিবার চালানো হামালার পর প্রথমবারের মতো জনসম্মুখে এসে ইমরান খান বলেন, ‘এই তিন ব্যক্তি আমাকে হত্যার সিদ্ধান্ত নেয়।’

তবে পাকিস্তান সরকার এই অভিযোগ অস্বীকার করে জানিয়েছে ‘ধর্মীয় উগ্রবাদে’ চালিত হয়ে বন্দুকধারীরা এই হামলা করেছে। অন্যদিকে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর গণমাধ্যম শাখা হামলার বিষয়ে ইমরানের অভিযোগকে ‘ভিত্তিহীন ও দায়িত্বহীন’ বলে অভিহিত করেছে।খবর আলজাজিরার।

পাকিস্তানের আন্তবাহিনী গণসংযোগ শাখা এই বিষয়ে এক বিবৃতিতে জানায়, কোনো ধরনের সাক্ষ্যপ্রমাণ ছাড়াই রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান ও এর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আনা মানহানিকর অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত ও দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে পাকিস্তান সরকারকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সানাউল্লাহ এইসব অভিযোগ বাতিল করে দিয়ে বলেছেন জোট সরকার বিষয়টির স্বাধীন তদন্ত দাবি করছে। প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফও গোলাগুলির ঘটনার নিন্দা জানিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

ইমরান খানের গাড়ি বহরে চালানো ওই হামলায় একজন নিহত ও ১০ জন আহত হয়। এপ্রিল মাসে ইমরানকে অনাস্থা ভোটে ক্ষমতাচ্যুত করার পর এই ঘটনায় দেশটির রাজনৈতিক সঙ্কট আরও ঘণীভূত হলো। ৭০ বছর বয়সী সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা ইমরান খান লাহোর থেকে রাজধানী ইসলামাবাদের দিকে হাজার হাজার সমর্থককে নিয়ে লং মার্চের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন।

হুইল চেয়ারে বসে শক্ত ব্যান্ডেজে মোড়ানো ডান পা সামনে রেখে ইমরান খান ঘণ্টাখানেকেরও বেশি সময় সরকারের সমালোচনা করে কথা বলেন যাদের তিনি তাকে পদচ্যুত করার জন্য দায়ী করে আসছেন।

ইমরান দেশের জনগণকে স্বাধীকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন চালিয়ে যাবার জন্য আবেদন জানান। সুস্থ হয়েই তিনি ইসলামাবাদ অভিমুখে দলের লংমার্চ শুরু করার ঘোষণা দেন। তিনি পাকিস্তানের প্রধান বিচারপতির প্রতি তার ও দলের নেতাকর্মীদের প্রতি অন্যায়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন জানান। ইমরান অভিযুক্ত তিন ব্যক্তির পদত্যাগও দাবি করেন।

কালের আলো/ডিএস/এমএম

Print Friendly, PDF & Email