দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিতর্ক চর্চা শুরু করা হবে : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিতঃ 9:00 pm | October 14, 2022

কালের আলো প্রতিবেদক:

বিতর্ক চর্চা মানুষকে যুক্তিবাদী করে তোলে উল্লেখ করে দেশের সব প্রতিষ্ঠানে বিতর্ক চর্চা চালু করার পরামর্শ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

তিনি বলেছেন, আমরা আমাদের নতুন প্রজন্মকে মুক্তচিন্তা ও যুক্তিবাদী, বিজ্ঞানমনস্ক, প্রযুক্তিবান্ধব, প্রযুক্তি উদ্ভাবনে দক্ষ মানবিক ও সৃজনশীল মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। বিতর্ক চর্চা একজন মানুষকে যুক্তিবাদী হতে শেখায় এবং ভাষার ওপর দক্ষ করে তোলে।

শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) সকাল ১১টায় চাঁদপুর সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে ভাষাবীর এম এ ওয়াদুদ স্মারক জাতীয় বিতর্ক উৎসব-২০২২ এর উদ্বোধনের আগমুহূর্তে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, তিনদিনের এ বিতর্ক উৎসবে সারাদেশ থেকে বিতার্কিকরা অংশ নিয়েছেন। এটি সম্ভবত বিতার্কিকদের সবচেয়ে বড় মিলন মেলা।

তিনি বলেন, আমরা চাই, আমাদের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ চর্চাটি গড়ে উঠুক। যে প্রতিষ্ঠানে নেই, সেখানে চালু করা হোক এবং যেখানে আছে, সেখানে আরও ভালোভাবে করা হোক। আর মাদরাসা, কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে ক্লাব ভিত্তিক বিতর্ক চর্চা গড়ে উঠবে বলে আশা করি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ, সাবেক বিতার্কিক মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ডা. আবদুল নূর তুষার, চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. অসিত বরণ দাশ, চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, বিতর্ক উৎসবের চেয়ারমান সাব্বির আজমসহ অনেকে।

সকালে চাঁদপুর সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে কর্মসূচির উদ্বোধন ঘোষণা করেন চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমর) আসনের সংসদ সদস্য ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। দেশের দেড় শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিতার্ককিরা এ উৎসবে অংশ নিয়েছেন।

বর্ণাঢ্য র‌্যালির মাধ্যমে উৎসবের সূচনা করা হয়। র‌্যালিটি কলেজ ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে শহরের আব্দুল করিম পাটওয়ারী সড়ক, হাজি মহসীন রোড, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সড়ক, চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ রোড হয়ে আবার একই স্থানে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) রাতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা বিতার্কিকদের সঙ্গে ‘মিট ইউথ ডা. দীপু মনি, এমপি’ শিরোনামে ফেলোশিপ নেটওয়ার্কিং অনুষ্ঠিত হয়।

বির্তক উৎসব আয়োজনে রয়েছে ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট, চাঁদপুর সরকারি কলেজের অনুপ্রেরণায় চাঁদপুর ডিবেট মুভমেন্ট (সিডিএম) এবং চাঁদপুর সরকারি কলেজ ডিবেট ফোরাম (সিসিডিএফ)। সহযোগিতায় রয়েছে বাংলাদেশ ডিবেট ফেডারেশন (বিডিএফ)।

কালের আলো/ডিএস/এমএম

Print Friendly, PDF & Email