দলে ফেরার আশা ছাড়েননি আল-আমিন

প্রকাশিতঃ 5:37 pm | June 14, 2022

স্পোর্টস ডেস্ক, কালের আলো:

সবশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচটা খেলেছেন ২০২০ সালে। করোনাকালের ঠিক আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলেছিলেন একটি করে ম্যাচ। সেই শেষ। এরপর থেকে জাতীয় দলে আর জায়গা হয়নি পেসার আল-আমিন হোসেনের। দীর্ঘ চোটে ছিটকে গিয়েছিলেন দল থেকে।

করোনাকালে খেলা হয়নি দীর্ঘ দিন। এরপর তো বাংলাদেশ দলে রীতিমতো ‘পেস বিপ্লবই’ হয়ে গেছে। আল আমিনের ভাষায়, ‘এখন বাংলাদেশে পেস বোলিং বিপ্লব চলছে। ৩-৪টা করে পেস বোলার খেলে। যারা বাইরে আছে তারাও খুব ভালো করছে।’ এই কারণে আল আমিনের ফেরার পথটা হয়ে যায় বন্ধ। তবে নিজেকে প্রমাণ করে শিগগিরই আল আমিন ফিরতে চান জাতীয় দলে, গায়ে চড়াতে চান লাল সবুজের জার্সি।

এক সময় জাতীয় দলের পেসারদের পুলের নিয়মিত মুখ ছিলেন। তবে দল থেকে বাদ পড়ে এখন আবার নিজেকে তিনি দেখছেন অভিষেকের আগের অবস্থায়। তখন যেমন পারফর্ম করে জায়গা করে নিয়েছিলেন জাতীয় দলে, এখন ঠিক একইভাবে দলে ফিরতে চান তিনি।

মিরপুরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এমনটাই জানান আল-আমিন। বলেন, ‘ক্রিকেট খেলতে হলে জাতীয় দলের মত জাতীয় দলের বাইরেও খেলতে হবে। এটাই আসলে জীবন। যখন জাতীয় দলে খেলিনি তখন তো বাইরে পারফর্ম করেই দলে ঢুকেছি। ইঞ্জুরির কারণে জাতীয় দলে ছিলাম না। চেষ্টা করছি পারফর্ম করে কীভাবে আবার কামব্যাক করা যায়।’

জাতীয় দলের বাইরে থাকা পেসারদের নিয়ে হচ্ছে ক্যাম্প। সেখানে নিজের ভুল ত্রুটি শুধরে নিয়ে তিনি স্কিলে মনোযোগ দিচ্ছেন আপাতত। বললেন, ‘খুব ভালো একটা প্র্যাকটিসের ব্যবস্থা হয়েছে, ক্রিকেট বোর্ডকে ধন্যবাদ জানাই। আমরা যারা জাতীয় দলের সাথে সংযুক্ত নেই তাদেরকে নিয়ে ক্যাম্পে স্থানীয় কোচ তালহা ভাই, নাজমুল ভাইরা খুব ভালো কাজ করছেন। অনেক দিন ধরে হয়ত আমরা খেলছি কিন্তু নিজেদের ভুলভ্রান্তি ধরতে পারছিলাম না। এখানে ভিডিও হচ্ছে, যার যে সমস্যা সেটা নিয়ে নির্দিষ্ট করে কাজ হচ্ছে।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘যখন ম্যাচের মধ্যে ঢুকব তখন উইকেটের চিন্তা করা উচিৎ। আমাদের এখানে স্কিল নিয়েই মূলত কাজ হচ্ছে। কারও আউটসুইং ভালো, কারও ইনসুইং কম, ইয়র্কার, কারও বোলিং করার সময় বডি বাঁকা হয়… স্কিলের সমস্যাগুলো নিয়েই ক্যাম্প হচ্ছে।’

স্কিল ক্যাম্প চলছে এখন, এরপর এ দলের প্রস্তুতি ম্যাচ। দুই পর্ব শেষ করে বাংলাদেশ ‘এ’ দল যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে। তবে এত দূরের ভাবনা আপাতত আল-আমিন করছেন না। জানালেন, ‘সামনে ‘এ’ দলের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর আছে। এখন এটা নিয়ে চিন্তা করছি না। স্কিল ক্যাম্পের পর প্রস্তুতি ম্যাচ আছে। নির্বাচকরা সুযোগ দিলে চিন্তা করা যাবে।’

জাতীয় দল বর্তমানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে আছে। সেখানে সাফল্যের পূর্বশর্ত কী? আল-আমিন জানালেন, ‘আমার কাছে মনে হয় ওদের পেস বোলিংয়ের চেয়ে আমাদের পেস বোলিং অভিজ্ঞতায় অনেক এগিয়ে। দেশের বাইরে চ্যালেঞ্জ সবসময় ব্যাটারদের। দক্ষিণ আফ্রিকাতে পেসার স্পিনাররা ভালোই করেছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজে ব্যাটাররা ভালো করলে ফলাফল আমাদের পক্ষে আসবে।’

কালের আলো/এমএইচ/এসবি

Print Friendly, PDF & Email