এবার মস্কোর সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা ইউক্রেনীয় অর্থোডক্স গির্জা

প্রকাশিতঃ 12:01 pm | May 29, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

ইউক্রেনে রুশ আক্রমণের কারণে মস্কোর অর্থোডক্স গির্জার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দিয়েছে ইউক্রেনের অর্থোডক্স গির্জার একটি শাখা। ইউক্রেনের অর্থোডক্স গির্জার এ শাখাটি ২০১৯ সালের বিভেদের পর থেকে মস্কোর প্রতি অনুগতই ছিল।

বিশ্বব্যাপী অর্থোডক্স খ্রিষ্টানদের আধ্যাত্মিক নেতা ইউক্রেনকে ২০১৯ সালে মস্কো থেকে স্বাধীন হয়ে আলাদা গির্জা গঠনের অনুমতি দেয়। এর ফলে দুদেশের অর্থোডক্সদের মধ্যে শতাব্দী পুরোনো ধর্মীয় বন্ধনের অবসান ঘটে।

তবে, অনেক প্যারিশ (গির্জার এখতিয়ার বিভাগ), বিশেষ করে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের খ্রিষ্টান, ইউক্রেনীয় অর্থোডক্স চার্চ-মস্কো প্যাট্রিয়ার্কেট চার্চের ছত্রছায়ায় অনুগত থাকার জন্য নির্বাচিত হয়েছে।

ইউক্রেনের অর্থোডক্স গির্জার নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হওয়া এক বৈঠকের পর কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করে যে, তারা রাশিয়া থেকে ‘সম্পূর্ণ স্বাধীনতা’ ঘোষণা করবে।

শুক্রবার গির্জা এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘ইউক্রেনীয় অর্থোডক্স গির্জার পূর্ণ স্বায়ত্তশাসন ও স্বাধীন ঘোষণা করে এর ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সংবিধি আইনে সংশ্লিষ্ট সংযোজন এবং পরিবর্তনগুলো অনুমোদন করেছে কাউন্সিল।’

বিবৃতিতে ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন এবং এতে রাশিয়ার অর্থোডক্স গির্জাপ্রধান প্যাট্রিয়ার্ক কিরিলের সমর্থনের নিন্দা করা হয়েছে। ইউক্রেন বলেছে, দেশটিতে পুরো মাত্রার আগ্রাসন ছিল সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে।

এদিকে, কিয়েভ-ভিত্তিক রাজুমকোভ সেন্টারের ২০২০ সালের সমীক্ষায় দেখা গেছে, ইউক্রেনের ৩৪ শতাংশ খ্রিষ্টান ইউক্রেনের মূল অর্থোডক্স গির্জার সদস্য হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে; অন্যদিকে, ইউক্রেনের ১৪ শতাংশ খ্রিষ্টান মস্কো প্যাট্রিয়ার্কেট গির্জার সদস্য।

উল্লেখ্য, ইউক্রেনে রুশ আক্রমণের জেরে শুক্রবারের এ সিদ্ধান্তের আগে ৪০০টিরও বেশি প্যারিশ ইউক্রেনীয় অর্থোডক্স গির্জা-মস্কো প্যাট্রিয়ার্কেট গির্জা ছেড়ে গেছে।

কালের আলো/ডিএসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email