বর্তমান প্রজন্মের কাছে ওয়াজেদ মিয়ার জীবন ও কর্ম অনুকরণীয় : স্পিকার

প্রকাশিতঃ 7:55 pm | May 09, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া অত্যন্ত সৎ ও কঠিন ব্যক্তিত্বের অধিকারী ছিলেন। আত্মমর্যাদায় বলীয়ান হয়ে মেধা ও দক্ষতা দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্র পর্যন্ত তিনি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছিলেন। বর্তমান প্রজন্মের কাছে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার জীবন ও কর্ম অনুকরণীয়।

তিনি বলেন, জাতি গঠনে তাঁর অবদানগুলো সকলের কাছে ছড়িয়ে দিতে হবে, এর মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম তাঁর মত জীবন গঠনে উৎসাহ পাবে। তাঁর মত দক্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী দেশের উন্নয়নে অত্যন্ত প্রয়োজন।

সোমবার (০৯ মে) রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত বিশিষ্ট পরমাণুবিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আজ ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে স্পিকার এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

স্পিকার বলেন, পীরগঞ্জে জন্মগ্রহণকারী এই মহান ব্যক্তির কাছ থেকে নতুন প্রজন্মের অনেক কিছু শেখার আছে। তাঁর বিশেষায়িত ক্ষেত্রে তিনি অসামান্য অবদান রেখে গেছেন এবং তাঁর লেখা বইও প্রকাশিত হয়েছে। অনেক গবেষণা কাজের সাথে তিনি সম্পৃক্ত ছিলেন। দেশের বাইরে বিভিন্ন স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি অধ্যাপনা ও গবেষণা করেছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার দুই সন্তান সজীব ওয়াজেদ জয় ও সায়মা হোসেন আজ মেধার স্বাক্ষর রেখে কাজ করে চলেছেন। সায়মা হোসেন সারাবিশ্বে অটিজমজনিত জটিলতা সমাধানকল্পে কাজ করছেন এবং সজীব ওয়াজেদ জয় একজন বিশ্বখ্যাত আইটি বিশেষজ্ঞ যিনি ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার হিসেবে কাজ করছেন।

পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিরোদা রানী রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র এ এস এম তাজিমুল ইসলাম শামীম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অধ্যাপক নুরুল আমিন রাজা ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক শাহিদুল ইসলাম পিন্টু বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

কালের আলো/ডিএস/এমএম

Print Friendly, PDF & Email