‘প্রজন্ম’র বদলে ‘প্রজম্ম’ উচ্চারণকারী তারেকের ‘জ্ঞানের বহর’ নিয়ে ফের প্রশ্ন

প্রকাশিতঃ 4:41 am | November 30, 2021

পলিটিক্যাল করেসপন্ডেন্ট, কালের আলো :

বিএনপির দন্ডিত ভাইস চেয়ারম্যান তারেক জিয়া। দীর্ঘদিন পলাতক জীবন যাপন করছেন লন্ডনে। কার্যত দলটির দন্ডমুন্ডের কর্তা তিনিই। নিজেদের শাসনামলে বহুল বিতর্কিত হাওয়া ভবনের প্রধান। যাকে নিয়ে এখনও ‘খোয়াব’ দেখেন দলটির নেতা-কর্মীরা।

যিনি একটি বৃহৎ রাজনৈতিক দলের নেতা সেই তিনিই কীনা রীতিমতো উচ্চারণে ‘দুর্বল’! ‘প্রজন্ম’ নামক সহজ শব্দের উচ্চারণ করেন ‘প্রজম্ম’। একটি দলের প্রধান নেতার এমন উচ্চারণ সমস্যায় মুখ টিপে হাসছেন, ব্যঙ্গবিদ্রূপ করছেন অনেকেই।

সোশ্যাল মিডিয়ায় কেউ কেউ ‘জ্ঞানের বহর’ নামক দু’টি শব্দে তাকে ধুইয়ে দিচ্ছেন হুল ফোটানো বাগধারার ব্যবহারের মাধ্যমে। আবার অনেকেই ছাত্রজীবনে তার পড়াশুনায় অমনোযোগী স্বভাবের বদৌলতে অর্জিত ‘অজ্ঞতা’কেও ফোকাস করেছেন।

দেখা যায়, লন্ডন থেকে পরিচালিত বিএনপি’র প্রোপাগান্ডা স্কোয়াডের একটি ইউটিউব আইডি থেকে সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে তারেকের তিন মিনিটের একটি বক্তব্যের চুম্বক অংশ প্রচার করা হয়। সেখানে পলাতক এই আসামি নতুন প্রজন্মের তরুণ ভোটারদের ‘ছবক’ দিচ্ছিলেন।

তিন মিনিটের ওই বক্তব্যে কমপক্ষে ৭ বার ‘প্রজম্ম’ উচ্চারণ করেছেন তারেক। সেখানে উপস্থিত এক শ্রেণির উন্মাদ সমর্থক এই ভুল উচ্চারণেই তালি দিচ্ছেন। অথচ বাংলা অভিধানে ‘প্রজম্ম’ বলে কোন শব্দই নেই।

অনেকেই বলছেন, বর্তমান তরুণ প্রজন্ম শিক্ষিত এবং আধুনিক। প্রযুক্তির সহজলভ্যতা তাদের জীবনে দিয়েছে বেগ। বর্তমান সরকার তরুণ প্রজন্মের সুন্দর ভবিষ্যত বিনির্মাণে কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমান পরিবর্তনশীল বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য তারা সহজেই নিজেদের উপযোগী হিসেবে গড়ে তুলতে পারছে।

এমন বাস্তবতায় নেতিবাচক ইমেজের একজন দলীয় প্রধানের এমন ভুল উচ্চারণের ফলে তার বিদ্যার বহর মেপে ফেলা গেছে অতি সহজেই। কারও কারও মতে, তারেকের উচিত ধান্ধা-ফিকির বাদ দিয়ে পড়াশুনায় মনোনিবেশ করা।

মূল্যবোধের শিক্ষাও যেমন তার বড্ড অভাব তেমনি আলো নেই শিক্ষারও। নয়তো মাত্র তিন মিনিটে একই শব্দ ৭ বার ভুল উচ্চারণ করেন?

ভুল উচ্চারণে তার কথিত জ্ঞানের ‘ছবক’ উদ্রেক করেছে হাসির। আবার এরই মধ্যে কেউ ‘বিনোদন’ খুঁজে পেয়েছেন। এমন ‘নন মেট্রিক’ মার্কা নেতা রাষ্ট্রপ্রধান হবার স্বপ্ন দেখেন কীভাবে এই প্রশ্নও মোটা দাগে উচ্চারিত হচ্ছে।

কালের আলো/এসআর/এএ

Print Friendly, PDF & Email