সাংবাদিকরা বস্তুনিষ্ঠতার সঙ্গে কাজ করলে দেশ ও রাষ্ট্র উপকৃত হয় : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ 9:23 pm | October 10, 2021

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালের আলো:

চলতি বছর নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী দুই সাংবাদিক ফিলিপাইনের মারিয়া রেসা এবং রাশিয়ার দিমিত্রি মুরাতফকে অভিনন্দন জানিয়ে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন,একজন সাংবাদিক অকুতোভয়ে বস্তুনিষ্ঠতার সঙ্গে কাজ করলে দেশ,সমাজ ও রাষ্ট্র উপকৃত হয়।

রোববার (১০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাজধানীতে ঢাকা ক্লাবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ এবাদুল করিমের পক্ষ থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবকে উপহার দেওয়া গাড়ির চাবি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দান শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ অভিনন্দন ব্যক্ত করেন।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মোহাম্মদ এবাদুল করিমের সভাপতিত্বে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা: মো: মুরাদ হাসান, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

হাছান মাহমুদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘৮৬ বছর পর দুইজন সাংবাদিক নোবেল শান্তি পুরস্কার পেলেন। এজন্য তারা সবার অভিনন্দন পাবার যোগ্য। তারা সমস্ত ভয়ভীতি লোভ-লালসার উর্ধ্বে উঠে সত্যপ্রকাশের যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, সারা বিশ্বের সাংবাদিকরা এতে উৎসাহিত হবে।’

এর আগে অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সাংবাদিকদের অনেক ক্ষমতা। সমাজের অনুন্মোচিত বিষয়, মানুষের অব্যক্ত বেদনা তারা তুলে ধরতে পারেন। প্রান্তিক পর্যায়ের সাংবাদিকরা এক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখতে সক্ষম। সাংবাদিকদের এই কাজে দেশ, সমাজ ও রাষ্ট্র উপকৃত হয়।’

মোহাম্মদ এবাদুল করিম এসময় তার এলাকার সাংবাদিকদের প্রশংসা করেন এবং র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী সাংবাদিকদের গাড়ি প্রদানকে সাধুবাদ জানান। তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী অতিথিবৃন্দকে নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিনের হাতে গাড়ির স্মারক চাবি হস্তান্তর করেন।

কালের আলো/এসএসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email