জাতিসংঘ অধিবেশনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী, আলোচনায় গুরুত্ব পাবে রোহিঙ্গা ইস্যু

প্রকাশিতঃ 10:46 am | September 15, 2021

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালের আলো:

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্র সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আগামী সেপ্টেম্বর ২৪ জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাষণ দেবেন। এর আগে তিনি জাতিসংঘে ১৭ বার ভাষণ দিয়েছেন।

আগামী রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তিনি জেএফকে বিমানবন্দরে অবতরণ করবেন, আগামী সেপ্টেম্বর ২৪ জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাষণ দেবেন। এর আগে তিনি জাতিসংঘে ১৭ বার ভাষণ দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী ২১ থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে অংশগ্রহণ করবেন। অধিবেশনের পাশাপাশি রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বিভিন্ন উচ্চপর্যায়ের সভায় অংশগ্রহণ করবেন বলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় নিশ্চিত করেছে।

সম্প্রতি আওয়ামী লীগের কার্যনিবাহী সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেও তার সফরের বিষয়ে সবাইকে অবহিত করেছেন। প্রধানমন্ত্রী নিজেই বলেছেন, ওখানে গেলে বিভিন্ন দেশের সরকারপ্রধান ও রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে দেখা হবে। সাক্ষাতে অনেক কিছু বলার সুযোগ হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে বাংলায় ভাষণ দেবেন। যেখানে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন থেকে শুরু করে এসডিজি বাস্তবায়নের সার্বিক অগ্রগতি তুলে ধরবেন। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশ আগামীতে কোথায় যাবে, তারও একটি চিত্র উপস্থাপন করবেন। বাংলাদেশের অগ্রগতির পথপরিক্রমা সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হবে। তবে রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে ভাষণে সরাসরি না বললেও, তাদের জন্য সরকার কী দায়িত্ব পালন করেছে, সে বিষয়ে সবাইকে অবহিত করবেন। একই সঙ্গে এই রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানাবেন। জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত মোকাবিলা সরকারের একার পক্ষে সম্ভব নয়, সে বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী যুক্তি তুলে ধরবেন।

পাশাপাশি করোনাকালে ভ্যাকসিন থেকে স্বল্পোন্নত দেশগুলো যাতে কোনোভাবেই বঞ্চিত না হয়, সে বিষয়ে সবার প্রতি অনুরোধ জানাতে পারেন বলে আভাস গাওয়া গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী করোনা মোকাবিলায় বিভিন্ন কার্যক্রম সর্ম্পকে ধারণা দিবেন। বিশ্বের সব দেশে যখন করোনার আক্রান্তের হার বেশি, সেখানে বাংলাদেশের করোনা নিয়ন্ত্রণে; কী ধরনের পদক্ষেপ নিয়ে সাফল্য অর্জন করেছেন তার একটি পরিক্রমাও তুলে ধরার চেষ্টা করবেন। শুধু তাই নয়, দেশের মানুষকে বাঁচানোর জন্য সরকারের প্রণোদনা প্যাকেজ থেকে শুরু করে ভ্যাসিন কার্যক্রমের বিষয়টিও অবহিত করবেন।

সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী বেশ কয়েকজন সরকারপ্রধান ও রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে আলাদাভাবে আলোচনা করবেন। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, রাশিয়া ও চীন অন্যতম। এখানে আলোচনার মূল বিষয় থাকবে জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাতে আন্তর্জাতিকভাবে সহায়তা। এ ছাড়াও রোহিঙ্গা ইস্যু বিষয়টি উপস্থাপন করা হবে।

এদিকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, বিভিন্ন উচ্চপর্যায়ের সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অংশগ্রহণ করবেন। যেখানে রোহিঙ্গা ইস্যু প্রাধান্য পাবে বলে আভাস দেওয়া হয়েছে। রোহিঙ্গাদের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে কী পরিমাপ অর্থ ব্যয় হয়েছে তার একটি ফিরিস্তি তুলে ধরা হতে পারে। শুধু তাই নয়, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী কী পরিমাণ বনজ সম্পদ ও পরিবেশ ধ্বংস করেছে তারও একটি চিত্র তুলে ধরা হতে পারে।

কালের আলো/এনএল/পিএমকে

Print Friendly, PDF & Email