‘ফিরোজা’য় ফিরলেন খালেদা জিয়া

প্রকাশিতঃ 5:10 pm | March 25, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

সাড়ে ২৫ মাস ১৭ দিন পর রাজধানীর গুলশানের বাসভবন ‘ফিরোজা’ ফিরেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। দুর্নীতি মামলায় কারাদণ্ড পাওয়ায় আর সেই বাসায় ফেরা হয়নি। তারপর থেকে ছিলেন পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগার এবং সবশেষ কারান্তরীণ অবস্থায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে। বিশেষ বিবেচনায় শর্তসাপেক্ষে মুক্তি পাওয়ায় সাড়ে ২৫ মাস পর সেই ‘ফিরোজায়’ ফিরলেন খালেদা জিয়া।

বুধবার (২৫ মার্চ) বিকেল ৪টার পর কারান্তরীণ খালেদাকে মুক্তি দেয়া হলে তিনি বিএসএমএইউ হাসপাতাল প্রাঙ্গণে রাখা গাড়িতে ওঠেন। এসময় নেতাকর্মীরা গাড়িটি ঘিরে শ্লোগান দিতে থাকেন। সেখান থেকে খালেদাকে বহনকারী গাড়ি তার গুলশানের ৭৯ নম্বর রোডের ১১ নম্বর বাসভবন ‘ফিরোজা’র উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার গৃহকর্মী ফাতেমাও বের হন। তবে ফাতেমা অন্য গাড়িতে করে বাসার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। এরপর ৫.১৫ এর দিকে তার গাড়ি ফিরোজায় প্রবেশ করে।

এদিন দুপুরেই খালেদাকে নিতে বিকেল পৌনে ৩টার দিকে বিএসএমএমইউতে পৌঁছান তার ভাই শামীম ইস্কান্দার, বোন বেগম সেলিনা ইসলাম এবং দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ শীর্ষ নেতারা। খানিকবাদে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরাও জড়ো হন হাসপাতাল এলাকায়। গাড়িবহর ‘ফিরোজা’র উদ্দেশে রওয়ানা হলে তার সামনে দেখা যায় নেতাকর্মীদের।

এর আগে, ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি সকালে শেষবারের মতো ফিরোজায় ছিলেন খালেদা জিয়া। ওই দিন রাজধানীর বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসায় স্থাপিত বিশেষ আদালতে হাজির হয়েছিলেন তিনি। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সেদিন তার পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেন বিচারক। সাজা ঘোষণার পর আদালত থেকেই পুরান ঢাকার পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয় খালেদা জিয়াকে। শুরু হয় সাজার মেয়াদ। ওই দিন থেকেই শূন্য ‘ফিরোজা’, খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন।

এরপর আদালতের প্রাঙ্গণে দীর্ঘ দুই বছর ঘুরেও জামিন মেলেনি খালেদা জিয়ার। গত বছরের এপ্রিলে শারীরিক অবস্থার অবনতি হয় তার। ভর্তি করা হলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে। উন্নত চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে নেওয়ার কারণ দেখিয়েও জামিন হয়নি। এর মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ায় দেশ যখন ১০ দিনের সাধারণ ছুটির পথে, তখন মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) ঘোষণা এলো, নির্বাহী আদেশে সাজা স্থগিত হচ্ছে। দুই শর্তে ছয় মাসের জন্য মুক্তি পাচ্ছেন খালেদা জিয়া।

সেই আদেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, কারা মহাপরিদর্শক ও জেল সুপারের কার্যালয় ঘুরে পৌঁছালো বিএসএমএমইউ’তে। বিকেল ৪টায় হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে এলেন খালেদা জিয়া। ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দারের গাড়িতে চড়ে রওনা হলেন গুলশানে নিজ বাসভবন ফিরোজা’র পথে। সাড়ে ৪টা নাগাদ দুই বছর এক মাস ১৭ দিন পর ফের ফিরোজা’য় পা রাখলেন খালেদা জিয়া।

কালের আলো/এনএল/এমএইচএ

Print Friendly, PDF & Email