‘এমপি’ শফিউল মেয়র প্রার্থী, অবাক কাণ্ড ঘটিয়েছে ইসি!

প্রকাশিতঃ 10:41 pm | March 21, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

ঢাকা-১০ (ধানমন্ডি-কলাবাগান-নিউ মার্কেট-হাজারীবাগ) আসনের উপনির্বাচনে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। নৌকা প্রতীক নিয়ে ১৫৯৫৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন তিনি। ইতোমধ্যে খবরটি পুরনোই সবার জন্য। কিন্তু এ নির্বাচনের ফল ঘোষণা নিয়ে অবাক কাণ্ড ঘটিয়েছেন নির্বাচন কমিশন(ইসি)।

সংসদীয় আসনটির ফল ঘোষণা করা হলেও ‘এমপি প্রার্থীদের নামের’ স্থলে লিখেছেন ‘প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থীর নাম’। শনিবার রাতে (২১ মার্চ) রিটার্নিং কমকর্তা জি এম সাহাতাব উদ্দিন তকে বিজয়ী ঘোষণা করেন।

সাহাতাব উদ্দিনের স্বাক্ষরিত ফলাফল শিটে কোন প্রার্থী কত ভোট পেয়েছেন তা লেখা রয়েছে। কিন্তু বার্তা প্রেরণ ও গ্রহণ শিটে দেখা যায় ‘এমপি প্রার্থীদের নামের’ স্থলে লেখা আছে ‘প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থীর নাম’। প্রার্থীদের সবাইকে সেখানে মেয়র প্রার্থী বলে উল্লেখ করা হেয়েছে। একটি সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনের ফলাফলের শিটে এমন ভুলে অনেকেই বিস্ময় প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে সাহাতাব উদ্দিন বলেন, ‘আগের ফাইলের ওপর ফলাফল লেখায় এমন ভুল হয়েছে। ভুল বোঝার পর এটি সংশোধন করে দেওয়া হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ঢাকা-১০ আসনে বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ভোট গণনা শেষে রাতে ঢাকা টিচার্স ট্রেনিং কলেজের ফল সংগ্রহ ও পরিবেশন কেন্দ্রে এ ফল ঘোষণা করেন জি এম সাহাতাব উদ্দিন। নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৫.২৮ শতাংশ। আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন (নৌকা)।১১৭টি কেন্দ্রে মোট ভোট পেয়েছেন ১৫৯৫৫। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির শেখ রবিউল আলম (ধানের শীষ) মোট ভোট পেয়েছেন ৮১৭। প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের কাজী মোহাম্মদ আব্দুর রহীম (বাঘ প্রতীকে) ভোট পেয়েছেন ৬৩টি। মুসলিম লীগের নবাব খাজা আলী হাসান আসকারী (হারিকেন) ভোট পেয়েছেন ১৫টি। বাংলাদেশ কংগ্রেসের মিজানুর রহমান (ডাব) ভোট পেয়েছেন ১৮টি। জাতীয় পার্টির হাজী মো. শাহ্জাহান (লাঙ্গল) ভোট পেয়েছেন ৯৭টি।

কালের আলো/এনএল/এমএম

Print Friendly, PDF & Email