সকালে হঠাৎ রাতের আঁধার

প্রকাশিতঃ 11:56 am | May 10, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

বেলা তখন ১১টা। কিন্তু বাইরে তাকালে বোঝার উপায় নেই রাত ১১টা নাকি বেলা ১১টা। এভাবেই বুধবার হঠাৎ রাজধানীর আকাশ ঢেকে যায় কালো মেঘে। ভরদুপুরেই নেমে আসে রাতের আঁধার। এক পর্যায়ে শুরু হয় অঝোর ধারায় বৃষ্টি।

বেলা সোয়া ১১টা থেকে রাজধানীতে প্রচণ্ড ঝড়-বৃষ্টি শুরু হয়েছে। সঙ্গে বজ্রপাত। এতে আতঙ্কিত হয়ে উঠে নগরবাসী। পথচারীরা আশ্রয় নেয় বিভিন্ন স্থাপনায়। অনেকে বৃষ্টিতে ভিজে ছুটেন গন্তব্যে। ঢাকার বাইরেও বিভিন্ন এলাকায় ঝড়-বৃষ্টি হচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

এ বছর আবহাওয়া অস্বাভাবিক আচরণ করছে শুরু থেকেই। বৃষ্টির মৌসুম শুরু হওয়ার আগেই বসন্তে শুরু হয় বৃষ্টিপাত। গ্রীষ্ম আসার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে বৃষ্টির মাত্রা। সঙ্গে বজ্রপাত ও কালবৈশাখী।

এবার বজ্রপাতে মৃত্যুর সংখ্যাও আশঙ্কাজনক। গত কয়েক দিনে বজ্রপাতে দেশের বিভিন্ন স্থানে শতাধিক লোকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার একদিনেই মারা গেছে প্রায় ৩০ জন।

রাজধানীসহ প্রায় সারাদেশে ঝড়ো হাওয়া এবং ভারী বর্ষণ হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান জানান, আগামী পাঁচ-ছয় দিন দেশের রংপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, সিলেট, ঢাকা, কুমিল্লাসহ দেশের পূর্বাঞ্চলে বজ্রপাত ও বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বেশি থাকবে।

এদিকে দিনের প্রাত্যহিক আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বুধবার সকাল নয়টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টায় বৃষ্টির প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া চিত্রের সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হয়েছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে অন্যত্র মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

কালের আলো/এসএ

Print Friendly, PDF & Email