পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন শাহাদাত হোসেন

প্রকাশিতঃ 3:02 pm | November 19, 2019

কালের আলো ডেস্ক:

জাতীয় লিগের ম্যাচ চলাকালে টিমমেট আরাফাত সানি জুনিয়রকে পেটানোর অভিযোগে জাতীয় দলের সাবেক খেলোয়াড় পেসার শাহাদাত হোসেনকে পাচঁ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এর মধ্যে দুই বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞা। তবে শাস্তির বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন তিনি।

রবিবার (১৭ নভেম্বর) খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে ঢাকা বিভাগ ও খুলনা বিভাগের মধ্যকার ম্যাচে সতীর্থ খেলোয়াড় আরাফাত সানি জুনিয়রকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন তিনি। ম্যাচ রেফারি আখতার আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, বোলিংয়ের সময় শাহাদাত বলের একটি নির্দিষ্ট অংশে শাইন দিতে সানিকে নির্দেশ দেন। সানি তাতে অনীহা প্রকাশ করলে মাঠেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন শাহাদাত। এ সময় তিনি সানিকে চড়-থাপ্পড়-লাথি মারেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে সতীর্থ এবং আম্পায়াররা এগিয়ে আসেন। ৩৩ বছর বয়সী এ পেসার এতদিন মাঠের বাইরে অপকর্মে জড়িত থাকলেও এবার সতীর্থকে মাঠে পিটিয়ে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন।

শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে স্বাগতিক খুলনা বিভাগের বিপক্ষে ম্যাচে বোলিংয়ের সময় আরাফাত সানি জুনিয়রকে বল ঘসে দিতে বলেন শাহাদাত। কিন্তু সানি তাতে গড়িমসি করলে ক্ষিপ্ত হয়ে মাঠের মধ্যেই সানিকে কয়েকটি চড় মারেন শাহাদাত। এ সময় তাকে থামাতে ব্যর্থ হলে মাঠের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে ম্যাচটি থেকে শাহাদাতকে বাদ দেওয়া হয়।

এর আগে মাহফুজা আক্তার হ্যাপি নামের এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে ২০১৫ সালে মামলা হয় জাতীয় দলের এই বোলারের বিপক্ষে। ওই মামলায় প্রায় দুই মাস জেল হয়েছিল তার। এরপর থেকে তিনি দলে ফেরার আর সুযোগ পাননি।

উল্লেখ বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে ৩৮টি টেস্ট, ৫১টি একদিনের আন্তর্জাতিক এবং ৬টি টি-২০ ম্যাচে অংশ নেন শাহাদাত হোসেন।

কালের আলো/এডিবি

Print Friendly, PDF & Email