ত্যাগের ঈদে করোনামুক্তির আকুতি

প্রকাশিতঃ 1:07 pm | August 01, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

করোনার সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে শনিবার (০১ আগস্ট) দেশের মসজিদে মসজিদে মুসল্লিরা ঈদুল আজহা তথা কোরবানির ঈদের নামাজ আদায় করেছেন। নামাজ শেষে মোনাজাতে ছিল করোনামুক্তির প্রার্থনা ও স্বাভাবিক জীবনে ফেরার আকুতি। নামাজ আদায় শেষে পশু কোরবানিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন নগরবাসী।

বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে এবারের ঈদের প্রথম জামাত হয় সকাল ৭টায়। মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান এতে ইমামতি করেন।

মোনাজাতে মিজানুর রহমান বলেন, আল্লাহ যারা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেছেন, তাদের আপনি শাহাদাতের মর্যাদা দান করে দিন। হে আল্লাহ, যারা অসুস্থ আছেন, দয়া করে তাদের শেফা দান করে দিন।

তিনি বলেন, এই বিমারি থেকে, রোগ ব্যাধি থেকে আমাদের সবাইকে হেফাজত করে স্বাভাবিক জীবন যাপনের তওফিক দিন।

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ঈদুল ফিতরের মতো এবারও ঈদগাহ বা খোলা ময়দানে ঈদের জামাত করার অনুমতি দেওয়া হয়নি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের নামাজ মসজিদে মসজিদেই হচ্ছে।

শারীরিক দূরত্ব রেখে কাতার করতে হয়েছে বলে ভেতরে জায়গা না পেয়ে মসজিদের বাইরের প্রাঙ্গণেও অনেককে নামাজে দাঁড়াতে দেখা গেছে।

করোনাভাইরাস অতি সংক্রামক বলে মাস্ক পরিধানসহ বেশ কিছু বিধিনিষেধ মেনে নামাজ পড়তে হয়েছে সবাইকে। নামাজ শেষে কোলাকুলি বা হাত মেলাতে দেখা যায়নি।

বায়তুল মোকাররমে সকাল ৭টায় ঈদের প্রধান জামাতের পর ৭টা ৫০ মিনিটে, ৮টা ৪৫ মিনিটে, ৯টা ৩৫ মিনিটে, ১০টা ৩০ মিনিটে এবং ১১টা ১০ মিনিটে ধারাবাহিকভাবে আরও পাঁচটি জামাত হয়।

কালের আলো/এনএল/বিআরকে

Print Friendly, PDF & Email