নতুন উচ্চতায় নিতে নতুন কর্মপরিকল্পনা আনসার ডিজির, ভাবমূর্তি-মর্যাদা অক্ষুণ্ণে গুরুত্ব

প্রকাশিতঃ 10:11 am | March 21, 2023

বিশেষ সংবাদদাতা, কালের আলো:

মাস দুয়েক আগে ৬২ লাখ সদস্যের বিশাল বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক (ডিজি) হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক। শুরু থেকেই নিজ বাহিনীর ভাবমূর্তি ও মর্যাদা অক্ষুণ্ণ রেখে দায়িত্ব পালনে নির্দেশনা দিয়েছেন নিজ বাহিনীর প্রতিটি সদস্যকে।

দীর্ঘ বর্ণাঢ্য চাকরি জীবনের অভিজ্ঞতা ও পেশাদারিত্বের মিশেলে তিনি রাজধানী ঢাকা থেকে প্রত্যন্ত পল্লীতে বিস্তৃত বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীকে দক্ষ ও গতিশীল নেতৃত্বে দেশের চলমান অভূতপূর্ব উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় গর্বিত অংশীদার করতে কাজ করে চলেছেন অবিরাম। যেকোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নিজ বাহিনীর প্রতিটি সদস্যকে উজ্জীবিত ও উদ্দীপ্ত করতে নিয়মিতই দেশের বিভিন্ন রেঞ্জের বিভিন্ন ইউনিট পরিদর্শন করছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রাজ্ঞ ও দূরদর্শী নেতৃত্বে উন্নয়নের গতিধারাকে আরও তরান্বিত করতে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিকে সমুন্নত রাখারও দৃঢ় অঙ্গীকার করেছেন মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক। খবর সংশ্লিষ্ট সূত্রের।

জানা যায়, সোমবার (২০ মার্চ) নিজ বাহিনীর ময়মনসিংহ রেঞ্জের বিভিন্ন ইউনিট পরিদর্শন করে মহাপরিচালক মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক নেত্রকোনায় ৬ আনসার ব্যাটালিয়নের দরবার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিটি সদস্যকে সততা নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘ব্যাটালিয়ন আনসারদের সব রকমের সুযোগ-সুবিধা প্রদানের ক্ষেত্রে সরকার অত্যন্ত আন্তরিক। দায়িত্বপালনের ক্ষেত্রে সকল স্তরের দায়বদ্ধতা, আনুগত্য ও কর্তব্যনিষ্ঠা পেশাগত দায়িত্বে প্রাধান্য দেওয়াসহ দেশপ্রেমে উদ্ধুদ্ধ হয়ে সততা নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।’ মহাপরিচালক শৃঙ্খলার মান সমুন্নত রেখে চেইন অব কমান্ডের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতেও নির্দেশনা প্রদান করেন।

এর আগে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক নেত্রকোনায় ৬ আনসার ব্যাটালিয়নে গিয়ে পৌঁছলে ময়মনসিংহ রেঞ্জ পরিচালক ড. মো. সাইফুর রহমান ও ৬ আনসার ব্যাটালিয়নের পরিচালক মোহাম্মদ আছলাম সিকদার তাঁকে স্বাগত জানান। এ সময় ৬ আনসার ব্যাটালিয়নের একদল চৌকস ব্যাটালিয়ন আনসার সদস্য তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। দরবার শেষে মহাপরিচালক ব্যাটালিয়নের বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শন ও বৃক্ষ রোপণ করেন। একই দিনে মহাপরিচালক নেত্রকোনা জেলা কমান্ড্যান্ট’র কার্যালয় এবং বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শন করেন। এরপর নেত্রকোনায় চলমান ভিডিপি (পুরুষ) মৌলিক প্রশিক্ষণার্থীদের সঙ্গেও তিনি মতবিনিময় করেন।

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যরা দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন কেপিআই, সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার নিরাপত্তা রক্ষা, জাতীয় ও উপ-নির্বাচন, ঈদ, পূজা, বড়দিন, নববর্ষে নিরাপত্তা দেওয়া ছাড়াও দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে একাগ্রচিত্তে কাজ করে চলেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাধিকবার বাহিনীটির সদস্যদের বহুমাত্রিক কর্মযজ্ঞে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন বিএনপি জামাতের অগ্নিসন্ত্রাস, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে মানুষের জানমালের নিরাপত্তা বিধানে আনসার বাহিনীর ভূমিকার।

সূত্র জানায়, নতুন ডিজি মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক বাহিনীটিকে নতুন উচ্চতায় নিতে নতুন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। যুগোপযোগী প্রশিক্ষণে তিনি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছেন। সপ্তাহ তিনেক আগে গাজীপুর সফিপুরে আনসার-ভিডিপি একাডেমিতে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ৩৮তম বিসিএস (আনসার) কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক বলেন, ‘আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মূল চালিকা শক্তি হলেন কর্মকর্তারা।

মৌলিক প্রশিক্ষণ গ্রহণের মাধ্যমে নবনিয়োগপ্রাপ্তরা নিজেদের শারীরিকভাবে দক্ষ ও চৌকস কর্মকর্তা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করবেন।’ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাসহ বাহিনীর উন্নয়নের পাশাপাশি দেশ ও জাতির সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজ করতেও উৎসাহিত করেন নিজ বাহিনীর প্রতিটি সদস্যকে।’

কালের আলো/এমএএএমকে

Print Friendly, PDF & Email