ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের উপদেশ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজির

প্রকাশিতঃ 4:55 pm | December 31, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সততার সাথে তাদের দায়িত্ব পালনের উপদেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম।

তিনি বলেছেন, সৎ পথে থাকলে রুটি রুজির অভাব হবে না। আপনি সৎ থাকলে আপনিও লাভবান হবেন।

শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর মহাখালীতে ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজের আট তলা নতুন ভবনের উদ্বোধনকালে তিনি এ উপদেশ দেন। এ সময় ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজের তৃতীয় ব্যাচের ইন্টার্ন চিকিৎসকদের পরিচিতি ও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

ইন্টার্ন চিকিৎসকদের উদ্দেশ্যে অধ্যাপক এ বি এম খুরশীদ আলম বলেন, মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। রোগীরা এলে তাদের আপন করে নিয়ে বুঝিয়ে কথা বলতে হবে। সৎপথে থাকলে রুটি রুজির অভাব হবে না। আপনি সৎ থাকলে আপনিও লাভবান হবেন। আপনি মানবিকতা বজায় রাখবেন। আপনি শপথ নিয়েছেন, আপনারা মানুষের জন্য কাজ করবেন। এটি বজায় রাখা দেশের জন্য প্রয়োজন, মানুষের জন্য প্রয়োজন।

সভাপতির বক্তব্যে ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজের চেয়ারম্যান ও এফবিসিসিআইর পরিচালক প্রীতি চক্রবর্তী সিআইপি বলেন, ‘আমরা আজকে এই হাসপাতালে অপারেশন থিয়েটার প্রতিষ্ঠা করেছি। আমাদের ইচ্ছা আছে আরও অনেক বড় করে অপারেশন থিয়েটার করার। করোনায় শুধু সরকারি না বেসরকারি হাসপাতালগুলোও কাজ করেছে। বাংলাদেশ থেকে বিদেশে অনেক মানুষকে যাতে চিকিৎসা নিতে হয়। বাংলাদেশেই যেন সর্বাধুনিক চিকিৎসা নেওয়া সম্ভব হয় সেই ব্যবস্থা আমাদের করতে হবে। আমরা সেই লক্ষ্যেই কাজ করছি।’

প্রীতি চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব ধনঞ্জয় কুমার দাস, ইউনিভার্সাল মেডিকেল কলেজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আশীষ কুমার চক্রবর্তী, ইউনিভার্সেল কার্ডিয়াক হাসপাতালের চিফ কার্ডিয়াক সার্জন, অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দিন আহমেদ, হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও অধ্যাপক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল অধ্যাপক ডা. মো. তানভীরুল ইসলাম প্রমুখ।

জানা গেছে, নবনির্মিত অষ্টম তলা ভবনে ১২৫ শয্যার ক্লিনিক্যাল শয্যা থাকবে। এই ভবনে আরও থাকছে সর্বাধুনিক অপারেশন থিয়েটার কমপ্লেক্স, চারটি আধুনিক অপারেশন থিয়েটার, লেবার রুম, আধুনিক অপারেটিভ কেয়ার ও সার্জিক্যাল আইসিইউ, আধুনিক ল্যাবরেটরি এবং সুসজ্জিত ব্লাড ব্যাংক।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email