গাজীপুরে গাছ থেকে দুই ব্যক্তির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিতঃ 2:47 pm | September 30, 2022

কালের আলো প্রতিনিধি:

গাজীপুরের শ্রীপুরে গজারি গাছের মগ ডাল থেকে অটোচালকের ঝুলন্ত এবং লিচু গাছে বাঁধা অবস্থায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তির (৪০) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় এবং বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়। শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শুক্রবার সকাল ১০টায় উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের আনসার টেপিরবাড়ি গ্রামের ইসমাইল হোসেনের লিচু বাগান থেকে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় অজ্ঞাত মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার গোসিঙ্গা ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামের গভীর বনের ভেতর থেকে নিহত অটোচালক আরিফ হোসেনের (৪০) মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত আরিফ উপজেলার গোসিঙ্গা ইউনিয়নের দড়িখোজেখানী গ্রামের সেকান্দর সিকদারের ছেলে।

ওসি মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানান, তেলিহাটি ইউনিয়নের আনসার টেপিরবাড়ি গ্রামের ইসমাইল হোসেনের লিচু বাগানে ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পায় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে। নিহতের মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

তাছাড়া, মরদেহ যেভাবে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে এতে বুঝা যাচ্ছে অজ্ঞাত ব্যক্তিকে দুষ্কৃতিকারীরা অন্য কোথাও হত্যা করে রাতের আঁধারে মরদেহ লিচু গাছে ঝুলিয়ে রেখে গেছে। নিহতের পরিচয় শনাক্তে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে, অটোচালক আরিফ হোসেনের স্ত্রী সুমি আক্তার জানান, ঢাকা যাওয়ার কথা বলে বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তার স্বামী বাড়ি থেকে বের হয়। ঢাকায় পৌঁছে ফোন দেওয়ার কথা থাকলেও ওইদিন রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত সে ফোন দেয়নি। পরে তার মোবাইলে ফোন দিয়ে আমি বন্ধ পাই। বৃহস্পতিবার বিকেলে স্থানীয় লোকজন নয়াপাড়া গ্রামের গভীর বনের ভেতর গজারি গাছের মগডালে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ দেখতে পায়। খবর পেয়ে আমি ওই বনে গিয়ে দেখি গজারি গাছের উঁচু ডালে ঝুলছে তার মরদেহটি। তিনি বলেন, সংসারে অভাব লেগে থাকায় প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ হতো। আরিফ নয়াপাড়া গ্রামের শ্বশুর বাড়িতে থেকে এলাকায় অটো চালাতো। স্থানীয়দের ধারণা পারিবারিক কলহের জেরেই ওই ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করেছে। কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

কালের আলো/এমএইচ/এমকে

Print Friendly, PDF & Email