মাথায় হাত দিয়ে রাস্তায় বসে পড়লেন শ্রীলেখা!

প্রকাশিতঃ 1:58 pm | September 13, 2021

শোবিজ ডেস্ক, কালের আলোঃ

ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবের হরাইজন বিভাগে দেখানো হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের ছবি ‘ওয়ান্‌স আপন আ টাইম ইন ক্যালকাটা’। উৎসবে যোগ দিতে ভেনিসে গিয়েছিলেন ছবিটির প্রধান অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র।

সেখান থেকে রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন তিনি। ছবিতে দেখা যায়, মাথায় হাত দিয়ে বসে আছেন, যেন সর্বস্ব খুইয়েছেন!

কিন্তু কেন এই অবস্থা তার? ভারত সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী করোনা আবহে বিদেশ ভ্রমণ শেষে দেশে ফিরতে হলে তার থাকতে হবে আরটিপিসিআর এর নেগেটিভ রিপোর্ট। এই রিপোর্ট না থাকলেই নিজ দেশে ফিরতে পারবেন শ্রীলেখা।

তাই এই পরীক্ষা করিয়েছেন অভিনেত্রী, কিন্তু সেই পরীক্ষার খরচে মাথায় হাত পরেছে অভিনেত্রীর।

শ্রীলেখা তার পোস্ট করা ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন, আরটিপিসিআর টেস্ট ১১২ ইউরো অর্থাৎ ১০ হাজার রুপি। মাথায় হাত ভেনিস (না ফেরত) অভিনেত্রীর।

৭৮তম ভেনিস আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হয়েছে পরিচালক আদিত্য বিক্রম সেনগুপ্তের ‘ওয়ান্স আপন অ্যা টাইম ইন কলকাতা’। এই ছবির কেন্দ্রীয় ভূমিকায় অভিনয় করেছেন শ্রীলেখা। সে কারণেই ভেনিসে গেছেন অভিনেত্রী। সবুজ শিফন শাড়িতে রেড কার্পেটে হাঁটতেও দেখা গেছে তাকে।

এবার ফেরার পালা। আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর ফেরার কথা শ্রীলেখার। তবে করোনা পরীক্ষা না করে সেখান থেকে ফেরা যাবে না। তাই আরটিপিসিআর টেস্টের খোঁজ করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু খরচ শুনেই মাথায় হাত দিয়ে বসে পড়েন অভিনেত্রী।

এর আগে ভেনিসের এক রেস্তোরাঁতে খেতে গিয়ে আঁতকে উঠেছিলেন শ্রীলেখা। সেখানে মাছের প্লেটের দাম ছিল ৬৩ ইউরো, যা ভারতীয় মুদ্রায় ৫ হাজার টাকা। সেদিন মজা করে মাছের নাম দিয়েছিলেন ‘কালনাগিনী’।

কালের আলো/টিআরকে/এসআইএল

Print Friendly, PDF & Email