চীনা রাষ্ট্রদূতকে তলব ইরানের

প্রকাশিতঃ 6:09 pm | June 02, 2024

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, কালের আলো:

উপসাগরীয় তিনটি দ্বীপের ইরানি মালিকানা নিয়ে চীন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিতর্কিত বিবৃতির প্রতিবাদে তেহরানে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইরান। উপসাগরীয় ওই দ্বীপগুলোর মালিকানা ইরানের পাশাপাশি আমিরাতও নিজেদের বলে দাবি করে। আমিরাতের দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়ে সম্প্রতি চীন যৌথ বিবৃতি দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে তেহরান।

ইরানের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, দ্বীপের মালিকানা নিয়ে বিতর্কিত বিবৃতির প্রতিবাদ জানাতে রোববার তেহরানে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

আবু মুসা, গ্রেটার ও লেসার তুনব নামের ওই তিন দ্বীপের মালিকানা ইরান এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত— উভয় দেশই দাবি করে। তবে দ্বীপ তিনটি ১৯৭১ সাল থেকে ইরানের দখলে রয়েছে। ব্রিটেনের কাছ থেকে সাতটি উপসাগরীয় আমিরাত বা অঞ্চল পূর্ণ স্বাধীনতা লাভের পরপরই দ্বীপগুলোর দখল নেয় ইরান। আর ওই সাত আমিরাত নিয়ে গঠন করা হয় সংযুক্ত আরব আমিরাত, যা এখন ওয়াশিংটনের ঘনিষ্ঠ মিত্র।

ইরানের সরকারি সংবাদমাধ্যম বলেছে, ভিত্তিহীন দাবির প্রতি চীনা সমর্থন জানিয়ে প্রকাশিত সংযুক্ত আরব আমিরাত-চীনের যৌথ বিবৃতির বিষয়ে তেহরানে চীনা রাষ্ট্রদূতের কাছে ইরানের আপত্তির কথা জানানো হয়েছে।

গত এক দশক ধরে ইরানের অন্যতম বৃহৎ বাণিজ্যিক অংশীদার চীন। ইরানের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম বলেছে, ‘‘ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জোর দিয়ে জানিয়েছে, উপসাগরীয় ওই তিন দ্বীপ ইরানের ভূখণ্ডের অবিচ্ছেদ্য অংশ। চীন এই বিষয়ে তাদের অবস্থান সংশোধন করবে বলেও আমরা প্রত্যাশা করছি।’’

সূত্র: রয়টার্স।

কালের আলো/ডিএইচ/কেএ

Print Friendly, PDF & Email