গবির সকল সংগঠন খুলে দেওয়া ও গাকসুর গঠনতন্ত্রের সংশোধনীর দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিতঃ 5:25 pm | August 16, 2022

মোঃ বরাতুজ্জামান স্পন্দন, গবি প্রতিনিধি:

সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের (গবি) সকল সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন খুলে দেওয়া সহ, গণ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (গাকসু) গঠনতন্ত্রের পূণরায় সংশোধনীর দাবিতে মানববন্ধন করেছে প্রতিষ্ঠানটির সকল শিক্ষার্থী।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) তিনদফা দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের পেশকৃত তিনদফা দাবি-
১. গঠনতন্ত্রের ১১ নং অনুচ্ছেদটি সংশোধন করে ‘সার্টিফিকেট অনুযায়ী নির্দিষ্ট বয়সসীমা (২৮ বছর) পর্যন্ত মাস্টার্সে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের নির্বাচনে প্রার্থীতার সুযোগ দিতে হবে’ উল্লেখ করতে হবে।

২. বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন খুলে দিতে হবে।

৩. বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে পূণরায় আলোচনা সভা করে হ্যাঁ-না ভোটের মাধ্যমে গঠনতন্ত্রের সংশোধনী পাস করতে হবে।

অবস্থানরত একজন শিক্ষার্থী বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের গঠনতন্ত্রের সংশোধনী বাতিল করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নতির জন্য যেই যোগ্য নেতৃত্ব আসা দরকার, এই সংশোধনী তার অন্তরায়। সুষ্ঠু রাজনীতি চর্চা করার জন্য এই সংশোধনী বাতিল করতে হবে এবং শিক্ষার্থীদের সাথে পুনরায় মতবিনিময় সভার আয়োজন করে আবারো সংশোধন করার দাবি জানাচ্ছি আমরা।

উক্ত বিষয়ে ছাত্র উপদেষ্টা ও সিনিয়র সহকারী রেজিস্ট্রার আবু মুহাম্মাদ মোকাম্মেল বলেন, সংশোধনী নিয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় যেকোনো বিষয়ে সকলের মতামত দেওয়ার সুযোগ ছিল। এমনকি তখন লিখিত মতামত দেওয়ারও সুযোগ ছিল। তখন তো তোমরা কিছু বলোনি।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন বলেন, শিক্ষার্থীদের দাবি বা সমস্যা থাকতে পারে। বিষয়টি নিয়ে আমরা আলোচনা করবো। সংশোধন করতে গেলে ট্রাস্টি বোর্ডের সাথে আলোচনায় বসতে হবে। আর আলোচনায় বসা মানে দীর্ঘ সময়ের ব্যপার। আলোচনা করে যা সিদ্ধান্ত হবে তা জানিয়ে দেওয়া হবে।

তখন উপস্থিত শিক্ষার্থীরা তাদের দাবির ভিত্তিতে কোনো পদক্ষেপ বা সিদ্ধান্ত গ্রহন না করে কঠোর আন্দোলন করবে বলে জানায়।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email