বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক হচ্ছেন মুখ্যসচিব ড.আহমদ কায়কাউস

প্রকাশিতঃ 6:08 pm | August 07, 2022

বিশেষ সংবাদদাতা, কালের আলো:

দেশে নানামুখী সঙ্কটে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখপাত্র হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন মুখ্যসচিব ড.আহমদ কায়কাউস। নিজের পরিচ্ছন্ন ইমেজ এবং দক্ষতার জন্যও তিনি বিভিন্ন মহলে প্রশংসিত হয়েছিলেন। কর্মদক্ষতার গুণেই প্রধানমন্ত্রী তার ওপর আস্থা রেখেছেন এবং তাকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগও দিয়েছেন।

আগামী বছরের ১ জানুয়ারি তার চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। পুনরায় এই পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগে আগ্রহও নেই তাঁর। তিনি বরাবরই নতুনের জন্য দূয়ার খুলে দিতে চান। ফলে নির্ধারিত সময়েই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্যসচিব পদ থেকে বিদায় নিচ্ছেন ড.আহমদ কায়কাউস।

তিনি বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক হিসেবে যোগ দিতে যাচ্ছেন। সরকার ওয়াশিংটনে বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক হিসেবে ড. আহমদ কায়কাউসকে মনোনীত করেছে। তাকে তিন বছরের জন্য এই পদে নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছে দায়িত্বশীল একাধিক সূত্র।

জানা যায়, বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী হিসেবে বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। শফিউল আলম’র মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১৮ অক্টোবর। এরপর আহমদ কায়কাউস সেখানে যোগ দেবেন।

এর আগে ২০১৯ সালের ১৯ অক্টোবর বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক হিসেবে তৎকালীন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম যোগদান করেছিলেন। তার মেয়াদ ছিল তিন বছরের জন্য। চলতি বছরের ১৮ অক্টোবর তার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে।

সূত্র জানায়, ড.আহমদ কায়কাউস প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালনের পর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পেশাদারিত্ব এবং শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। তবে কে তার স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন এই বিষয়ে এখনও নিশ্চিত হওয়া সম্ভব হয়নি।

তবে অনেকেই বলছেন, চলমান এই সঙ্কটে মুখ্য সচিব হিসেবেই ড.আহমদ কায়কাউসকেই পুনরায় চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া হলে তার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানো সম্ভব হতো। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা প্রতিপালনে তাঁর দূরদর্শী নেতৃত্ব সঙ্কটে আশার আলো জাগিয়েছে বরাবরই।

কালের আলো/এমএএএমকে

Print Friendly, PDF & Email