মারিউপোলে থিয়েটারে রুশ হামলায় ৩০০ নিহতের শঙ্কা

প্রকাশিতঃ 4:59 pm | March 25, 2022

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, কালের আলো:

ইউক্রেনের মারিউপোলের এক থিয়েটারে গত ১৬ মার্চ শক্তিশালী বোমা হামলা চালায় রুশ বাহিনী। এতোদিন পর আজ সেই হামলার হতাহতের খবর প্রকাশ করা হয়েছে। শুক্রবার (২৫ মার্চ) এমন খবর জানিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়েছে, সেই হামলায় অন্তত ৩০০ জন নিহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটির কর্মকর্তারা এই তথ্য দিয়েছেন।

মারিউপোল সিটি হল টেলিগ্রামে লিখেছে, প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যে জানা যাচ্ছে মারিউপোলের ড্রামা থিয়েটারে অন্তত ৩০০ ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

এর আগে ইউক্রেনের কর্মকর্তারা জানান, সেই থিয়েটারে এক হাজারের বেশি মানুষ আশ্রয় নিয়েছিল।

উল্লেখ্য, পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য ২০০৮ সাল থেকে আবেদন করে ইউক্রেন। মূলত, এ নিয়েই রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। তবে সম্প্রতি ন্যাটো ইউক্রেনকে পূর্ণ সদস্যপদ না দিলেও ‘সহযোগী দেশ’ হিসেবে মনোনীত করায় দ্বন্দ্বের তীব্রতা আরও বাড়ে। ন্যাটোর সদস্যপদের আবেদন প্রত্যাহারে চাপ প্রয়োগ করতে যুদ্ধ শুরুর দুই মাস আগ থেকেই ইউক্রেন সীমান্তে প্রায় দুই লাখ সেনা মোতায়েন রাখে মস্কো।

কিন্তু এই কৌশল কোনো কাজে না আসায় গত ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দুই ভূখণ্ড দনেৎস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয় রাশিয়া। ঠিক তার দুদিন পর ২৪ তারিখ ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এরপর রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী স্থল, আকাশ ও সমুদ্রপথে ইউক্রেনে এই হামলা শুরু করে।

এ দিকে চলমান এই যুদ্ধে ইতোমধ্যে ইউক্রেন ছেড়েছেন প্রায় ৩৯ লাখ মানুষ। যুদ্ধে ইউক্রেনের ১৩শ’ সেনা নিহত এবং রাশিয়ার ১৫ হাজার ৮০০ সৈন্য নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ইউক্রেন। তবে রাশিয়া বলছে, যুদ্ধে তাদের প্রায় ৫০০ সৈন্য নিহত এবং ইউক্রেনের আড়াই হাজারের বেশি সেনা নিহত হয়েছেন।

এ ছাড়া জাতিসংঘ জানিয়েছে, রুশ অভিযানে ইউক্রেনের এক হাজার ৩৫ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন।

কালের আলো/এমএইচ/জেআর

Print Friendly, PDF & Email