ফায়ার সার্ভিসের আধুনিকায়নে সদস্যদের উৎসাহ ও মনোবল বেড়েছে : ডিজি (ভিডিও)

প্রকাশিতঃ 5:36 pm | November 06, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের আধুনিকায়নে মহাকর্মযজ্ঞের সূচনা করায় অধিদপ্তরের সকল সদস্যদের উৎসাহ ও মনোবল বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো.সাজ্জাদ হোসাইন।

আরও পড়ুন: সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আজ থেকে দেশব্যাপী ফায়ার সার্ভিস সপ্তাহ শুরু

প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি অপরিসীম কৃতজ্ঞতার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সরকারের গৃহীত সকল কার্যক্রমের ফলে নব দিগন্তের সূচনা হয়েছে। আমি আশা করি ফায়ার সার্ভিস সপ্তাহে সকল সদস্য পর্যালোচনার মাধ্যমে সারাদেশে দুর্ঘটনার বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে অত্যন্ত সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

বুধবার (৬ নভেম্বর) বেলা সোয়া ১২ টার দিকে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

আরও পড়ুন: ৯ বছর আগের স্মৃতিতে সচিব, বললেন ফায়ার সার্ভিসের বদলে যাওয়ার গল্প (ভিডিও)

এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব মো.শহিদুজ্জামান।

আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশে শিল্প বিপ্লব শুরু হয়েছে : বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী (ভিডিও)

বহুমাত্রিক সেবাকাজে সম্পৃক্ত হচ্ছে ফায়ার সার্ভিস
ভালোবাসার কোটি কোটি প্রদীপের দীপ্তশিখা আর সাধারণ মানুষের আস্থার প্রতীতিতে রূপ নিয়েছে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর। নিজের পেশাগত সততা ও দক্ষতার আলোয় ফায়ার সার্ভিসকে নতুন উদ্যমে ঢেলে সাজিয়েছেন অধিদপ্তরটির মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো.সাজ্জাদ হোসাইন।

একটি স্বপ্ন, চেতনা ও পরিচ্ছন্ন দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে ফায়ার সার্ভিসকে শ্রেষ্ঠতম অবস্থায় নিয়ে যেতে দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ এ মহাপরিচালক (ডিজি) সভাপতির বক্তৃতায় বলেন, ‘যেকোন সময়ের তুলনায় ফায়ার সার্ভিসের সেবা প্রদানের কৌশল উন্নত হয়েছে। একই সাথে সেবার মানও বৃদ্ধি পাচ্ছে।

আরও পড়ুন: ২০২২ সালে ৭০৯ টি ফায়ার স্টেশন তৈরির টার্গেট সরকারের

সেবা সামর্থ্য বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে আমাদের সেবা ক্ষেত্রটি আগের তুলনায় ব্যাপকভাবে প্রসারিত হয়েছে। শুধু অগ্নি নির্বাপণে নিজেদের সম্পৃক্ত না রেখে আমরা এখন বহুমাত্রিক সেবা কাজে সম্পৃক্ত হচ্ছি। এছাড়াও আধুনিক সরঞ্জামাদি পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণের নিমিত্তে দেশ ও বিদেশে অধিক সংখ্যক সদস্যদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।’

চলমান বঙ্গবন্ধু ফায়ার একাডেমির কাজ
ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো.সাজ্জাদ হোসাইন বলেন, ভিশন ২০২১ এবং এসডিজি ২০৩০ বাস্তবায়নে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের আধুনিক প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষিত করার লক্ষে ইতোমধ্যে বঙ্গবন্ধু ফায়ার একাডেমির কাজ চলমান হয়েছে।

এরই ধারাবাহিকতায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে মাস্টার্স ই ফায়ারর্স এন্ড টেকনোলোজি ডিগ্রি প্রদানের কার্যক্রম শিগগির শুরু হতে যাচ্ছে। সেবা সুবিধাকে মানুষের দৌরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্যে বর্তমান সরকারের উদ্যোগকে আমরা পরিপূর্ণভাবে বাস্তবায়ন করতে বদ্ধ পরিকর।

শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় ফায়ার ফাইটার সোহেল রানাকে স্মরণ
চলতি বছরের ২৮ মার্চ ঢাকার বনানীর এফআর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে নিজের জীবনের মায়া ত্যাগ করে ফায়ার সার্ভিসের উঁচু ল্যাডারে (মই) উঠে আগুন নেভানো ও আটকে পড়া মানুষদের উদ্ধার করছিলেন রাজধানীর কুর্মিটোলা ফায়ার স্টেশনে দমকলকর্মী সোহেল রানা।

মৃত্যুঞ্জয়ী এ অগ্নিযোদ্ধাকে ভুলেননি তাঁর অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো.সাজ্জাদ হোসাইন। টানা ১৩ দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে জীবনের কাছে হেরে যাওয়া সোহেল রানাকে ফায়ার সার্ভিস সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি স্মরণ করেছেন শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায়।

একইসঙ্গে তিনি এফআর টাওয়ারে অগ্নিকান্ডে নিহত ফায়ার ফাইটার সোহেল রানাকে সম্পূর্ণ রাষ্ট্রীয় খরচে চিকিৎসা প্রদান করায় প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিবের প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

পরে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে পৃথকভাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী এবং সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিবকে শুভেচ্ছা ক্রেস্ট প্রদান করেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো.সাজ্জাদ হোসাইন।

অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের কো-অর্ডিনেটর মোহাম্মদ আব্দুল হান্নান খান পিপিএম, পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল শাকিল আহমেদ, কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক (ডিজি) রিয়ার এডমিরাল এম আশরাফুল হক, নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. জসীম উদ্দিন, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের নারায়ণগঞ্জ জোনের উপপরিচালক মো. আবদুল্লাহ আল আরেফিন, রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মমতাজ বেগম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কালের আলো/এসএকে/এমএএএমকে

Print Friendly, PDF & Email