অর্থাভাবে সবজি বেচছেন অক্ষয়ের সহ-অভিনেতা

প্রকাশিতঃ 11:21 pm | July 26, 2020

শোবিজ ডেস্ক, কালের আলো:

মহামারি করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে বলিউড অঙ্গনেও। ভারতে দীর্ঘদিন শুটিং বন্ধ। প্রেক্ষাগৃহও বন্ধ। এতে বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের চলচ্চিত্রকর্মীরা। করোনার সাম্প্রতিক শিকার বলিউড অভিনেতা কার্তিক সাহু। যিনি ওডিশায় বাস করেন। বিনোদন অঙ্গনের বেশির ভাগ প্রযোজনাই বন্ধ। অর্থ সংকটে সবজি বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছেন তিনি।

এনডিটিভি ও হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, কার্তিক সাহু ওডিশা জেলার কেন্দ্রপাড়ার গররপুর ব্লকে থাকেন। তিনি জানিয়েছেন, বলিউডে ভাগ্য যাচাইয়ের চেষ্টায় সেই ১৭ বছর বয়সে মুম্বাইয়ে যান। বহু বছর তিনি তারকাদের বডিগার্ড হিসেবে কাজ করেছেন। একসময় তিনি অমিতাভ বচ্চন, শচীন টেন্ডুলকারের মতো তারকারও দেহরক্ষী ছিলেন।

২০১৮ সালে কার্তিকের ভাগ্য ফেরে। অনেক ছবিতে অ্যাকশন দৃশ্যে কাজ করেছেন। বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানানো হয় প্রতিবেদনে। অক্ষয় কুমারের আসন্ন ‘সূর্যবংশী’ ছবিতেও তাঁর মারিপিটের দৃশ্য রয়েছে।

গত ২২ মার্চ ভারতজুড়ে লকডাউন ঘোষণার পর কার্তিক সাহু ওডিশার বাড়িতে ফেরেন। তার আগে অবশ্য জয়পুরে একটি মারপিটের দৃশ্যে অংশ নেন। সেই শেষ কাজ। এরপর থেকে চলচ্চিত্রে আর কোনো কাজ পাননি। নিজের পরিবারের মুখে দুমুঠো অন্ন তুলে দিতে সবজি বিক্রির পথ বেছে নিয়েছেন।

কাজের খোঁজে প্রথমে রাজ্যের রাজধানী ভুবনেশ্বরে যান, কিন্তু ব্যর্থ হন। শেষে রেসালগড়ে সবজি বিক্রি শুরু করেন। তবে হাল ছাড়েননি কার্তিক। তাঁর আশা, বলিউডে ফের ভাগ্য যাচাই করবেন। সবকিছু স্বাভাবিক হলে আবার সংগ্রাম করবেন। শুরু করবেন চলচ্চিত্রের জীবন।

কালের আলো/এসবি/এমজিএ

Print Friendly, PDF & Email