এএপিটিসি’র বার্ষিক সাধারণ সভা বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশের গৌরবোজ্জ্বল অর্জনের অনন্য স্বীকৃতি : সেনাপ্রধান

প্রকাশিতঃ 5:42 pm | May 27, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

বাংলাদেশ তথা বিপসট এ প্রথমবারের মতো অ্যাসোসিয়েশন অব এশিয়া-প্যাসিফিক পিস অপারেশন ট্রেনিং সেন্টার (এএপিটিসি) এর বার্ষিক সাধারণ সভা আয়োজন নিঃসন্দেহে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় ত্যাগ, অবদান ও গৌরবোজ্জ্বল অর্জনের এক অনন্য স্বীকৃতি বলে মনে করেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ।

তিনি বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় কূটনৈতিক ও সামরিক উভয় অঙ্গণে বাংলাদেশের বলিষ্ঠ নেতৃত্বের উদাহরণ তুলে ধরেন। বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় বহুপাক্ষিক সহযোগিতার উপরে গুরুত্বারোপ করে সেনাপ্রধান বলেন, ‘২০২৩ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শান্তি কেন্দ্রিক উন্নয়নের যে মডেল জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে উপস্থাপন করেছিলেন তা আজকের সংকটময় নিরাপত্তা পরিস্থিতি মোকাবেলায় আরো বেশি প্রাসঙ্গিক।’ পাশাপাশি তিনি জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর অনুকরণীয় পেশাদারিত্ব ও সফলতার চিত্র তুলে ধরেন এবং শান্তিরক্ষীদের উঁচুমানের প্রশিক্ষণ নিশ্চিতকরণে বিপসটের অবদানের প্রশংসা করেন।

সোমবার (২৭ মে) রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিং (বিপসট) এ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের শান্তিরক্ষা অপারেশনের প্রশিক্ষণ সম্পর্কিত সকল প্রতিষ্ঠানসমূহের আন্তর্জাতিক সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন অব এশিয়া-প্যাসিফিক পিস অপারেশন ট্রেনিং সেন্টার (এএপিটিসি) এর ১২তম বার্ষিক সাধারণ সভা এবং ওয়ার্কশপ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রযুক্তির উন্নয়ন ও অসামঞ্জস্যপূর্ণ ঝুঁকির কারণে বর্তমানে বিশ্বব্যাপী নিরাপত্তা পরিবেশ অত্যন্ত জটিল হয়ে উঠেছে। এই পরিবর্তিত নিরাপত্তা পরিস্থিতির গতি প্রকৃতি মূল্যায়ন ও তা মোকাবিলায় ভবিষ্যত করণীয় নির্ধারণ এবং প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের রূপরেখা প্রণয়ন ছিল এবারের এএপিটিসি’র বার্ষিক সাধারণ সভার মূল উদ্দেশ্য, এমনটি জানায় আন্ত:বাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)।

সেনাবাহিনী প্রধান তাঁর মূল্যবান বক্তব্যে আশা ব্যক্ত করেন, চারদিনব্যাপী এই সম্মেলনের আলোচনা ফলপ্রসূ হবে এবং অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে যা এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলোকে বিশ্ব শান্তিরক্ষায় আরো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করার ক্ষেত্রে উদ্বুদ্ধ করবে। পরে সেনাবাহিনী প্রধান জাতিসংঘ শান্তি অভিযানের সিম্যুলেশন প্রশিক্ষণ, ‘ইউনাইটেড নেশনস পিস অপারেশন সিম্যুলেশন ট্রেনিং (ইউএনপোস্ট) উদ্বোধন করেন।

আইএসপিআর জানায়, এএপিটিসি শান্তিরক্ষী অপারেশন, প্রশিক্ষণ ও গবেষণার সঙ্গে জড়িত নীতিনির্ধারক, গবেষক, শান্তিরক্ষী, প্রশিক্ষক ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ এবং প্রতিষ্ঠানসমূহের একটি অনন্য প্লাটফর্ম। এএপিটিসি’তে বর্তমানে ২৪টি সদস্য রাষ্ট্র ও ২টি পর্যবেক্ষক দেশ রয়েছে। গত ২০২৩ সালের বার্ষিক সম্মেলনে বিপসট এর কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল মোঃ নাসিম পারভেজ এক বছরের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই সংস্থার সভাপতির দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে জাতিসংঘের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, বাংলাদেশে নিয়োজিত জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি ও বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধি, বাংলাদেশে নিযুক্ত ডিফেন্স/মিলিটারি অ্যাটাশে, ঊর্ধ্বতন সামরিক, আধা-সামরিক ও অসামরিক কর্মকর্তা, জাতিসংঘের অন্যান্য সংস্থার প্রধান ও প্রতিনিধি, এএপিটিসি এর সদস্যভুক্ত ২৬টি দেশের প্রায় ৫০ জন বিদেশি প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

কালের আলো/ওয়াইএ/এমকে

Print Friendly, PDF & Email