‘মেয়র পদক ২০২২ যুব আদর্শ সম্মাননা’ পেলেন ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া

প্রকাশিতঃ 6:43 pm | March 13, 2023

কালের আলো প্রতিবেদক:

যুব আইকন ক্যাটাগরিতে ‘মেয়র পদক ২০২২ যুব আদর্শ সম্মাননা’ পেলেন চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া।

সোমবার (১৩ মার্চ) চট্টগ্রামের রেডিসন ব্লুতে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন চট্টগ্রাম শহরের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন ও মানবিক কর্মকাণ্ডে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে এমন গুণীজনদের ৫ ক্যাটাগরিতে সন্মাননা সূচক ‘মেয়র পদক’ প্রদান করেছেন।

সেখানে যুব আইকন ক্যাটাগরিতে তাঁকে এই সম্মাননা প্রদান করা হয়। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মেয়র, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ রেজাউল করিম চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার ড. আমিনুর রহমান, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মো. ফখরুজ্জামান, সিএমপি কমিশনার কৃষ্ণপদ রায়, ইপসা পরিচালক নাসিম বানু , সেভ ডি চিলড্রেন এর হিউম্যানিটারিয়ান মোস্তাক হোসেন।

অনুষ্ঠানে ৫টি ক্যাটাগরিতে ইয়ুথ আইকন (যুব আদর্শ ) ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া, নগর নেতৃত্ব-মো. মোবারক আলী, নগর স্বেচ্ছাসেবক- মুহাম্মদ আবু বক্কর ছিদ্দিক হারুন, নারী নেতৃত্ব- ডা. বাসনা রানী মুহুরীকে এবং বিশেষ ক্যাটাগরিতে গাউসিয়া কমিটিকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষকতায় ছিল ইপসা ও সেভ দি চিলড্রেন।

ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া প্রতিনিয়ত তাঁর কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে যুবকদের অনুপ্রাণিত করে যাচ্ছেন। ২০২০ সালের মার্চ-এপ্রিল মাসে করোনা সংক্রমণের শুরুতে মাত্র ১৫ দিনে বেসরকারি উদ্যোগে প্রথম করোনা বিশেষায়িত হাসপাতাল চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করে বাংলাদেশে আলোড়ন সৃষ্টি করেন।

তিনি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে থেকে এমবিবিএস উত্তীর্ণ হয়ে চিকিৎসা পেশায় নিয়োজিত হন। পরবর্তীতে তিনি সুইডেনের বিশ্ববিখ্যাত ক্যারোলেস্কা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জনস্বাস্থ্য বিষয়ে উচ্চতর ডিগ্রি লাভ করেন এবং ডেনমার্কের আরহার্স বিশ্ববিদ্যালয়ে রিসার্চ অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে কাজ করেন।

২০১৯ সালে দেশে ফিরে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসা পেশায় যুক্ত হন। ২০২০ সালে করোনা মহামারিতে দেশের সর্বপ্রথম বেসরকারি উদ্যোগে দেশের প্রথম ফিল্ড হাসপাতাল তৈরি করার মাধ্যমে তিনি যুবকদের দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হয়ে সংকট সময়ে মানুষের পাশে থাকার যে বার্তা দিয়েছেন তা যুব সমাজকে মহতী কার্যক্রমে উদ্বুদ্ধ করেছে। ফলশ্রুতিতে যুব সমাজ ব্যাপকভাবে অক্সিজেন ব্যাংক, আইসোলেশন সেন্টার, টিকাদানে উৎসাহিত করণসহ নানামুখী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেছে। ২০২০ সালে তিনি শেখ হাসিনা ইয়ুথ ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন।

ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া ইতিমধ্যে বেশকিছু কর্ম পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো: বেকার যুবকদের আত্মকর্মসংস্থান করতে প্রশিক্ষণ প্রদান, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাধ্যমে স্বেচ্ছাসেবকরা যাতে যথাযথভাবে মূল্যায়িত হয় সেজন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে পরামর্শ ও সম্পৃক্তকরণ, তরুণ-যুবকদের সামাজিক ও মানবিক কাজে অংশগ্রহণ নিশ্চিতে মোটিভেশনাল কর্মশালা, ক্যারিয়ার কর্মশালা, বুষ্টআপ ক্যাম্প, জব ফেয়ার আয়োজন ইত্যাদি। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে উপ-পরিচালক পদে কর্মরত।

কালের আলো/এমএইচ/আইবি

Print Friendly, PDF & Email