তাসনিয়া ফারিণের লাইফ চেঞ্জিং অভিজ্ঞতা

প্রকাশিতঃ 8:06 pm | January 03, 2023

শোবিজ ডেস্ক, কালের আলো:

ক্যারিয়ারের সুবর্ণ সিঁড়িতে পা রেখেছেন তাসনিয়া ফারিণ। নাটকের আঙিনা পেরিয়ে চষে বেড়াচ্ছেন ওয়েবে, বিচরণ করছেন সিনেমায়ও। ব্যস্ততাকে ভালোবেসে ডুবে থাকছেন কাজে। এই কর্মব্যস্ত ক্যারিয়ারে নতুন পালক যুক্ত হচ্ছে আসন্ন ফেব্রুয়ারিতে, ভালোবাসার মাসে।

মুক্তি পেতে যাচ্ছে ফারিণের প্রথম সিনেমা ‘আরও এক পৃথিবী’। এটি মূলত টলিউডের ছবি, বানিয়েছেন খ্যাতিমান পরিচালক অতনু ঘোষ। এই নির্মাতার ‘রবিবার’ সিনেমায় অভিনয় করেই বাংলাদেশের জয়া আহসান জিতেছেন ভারতের ফিল্মফেয়ার পুরস্কার।

আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি পশ্চিমবঙ্গে মুক্তি পাবে ‘আরও এক পৃথিবী’। ঘোষণাটি দিয়েছেন নির্মাতা। পাশাপাশি তাসনিয়া ফারিণও নিশ্চিত করলেন। সেই সঙ্গে জানালেন সিনেমাটিতে কাজের অভিজ্ঞতার গল্প।

বললেন, ‘আমার তো প্রথম সিনেমা। সে হিসেবে এটা আমার ড্রিম প্রজেক্টের মতোই। কাজের অভিজ্ঞতাও দারুণ ছিল। আমার কাছে একবারও মনে হয়নি যে বাইরের কোনও সিনেমায় কাজ করছি। মনে হয়েছে নিজের দেশের মানুষের সঙ্গেই কাজ করছি। সেভাবেই আমাকে সবাই গ্রহণ করেছিলেন। সবাই খুব কো-অপারেটিভ ছিলেন। এক্ষেত্রে নিজেকে ভাগ্যবানই বলা যেতে পারে।’

দেশে অনেক দিন ধরেই কাজ করছেন ফারিণ। মোস্তফা সরয়ার ফারুকী থেকে হালের নির্মাতা রায়হান রাফীসহ অনেকের নির্দেশনায় অভিনয় নৈপুণ্য ফুটিয়ে তুলেছেন। কিন্তু কলকাতার নির্মাতা-শিল্পীদের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন, কোনও পার্থক্য আছে কি? এ প্রশ্নের জবাবে ফারিণ বলেন, ‘একেক জায়গায় কাজের ধরনে কিছুটা পার্থক্য থাকেই। যেমন আমাদের দেশেও একেকজন নির্মাতার কাজের কৌশল একেক রকম। তবে আলাদা করে কিছু এই মুহূর্তে বলতে পারছি না। কাজের প্রয়োজনে, গল্পের প্রয়োজনে যতটা পার্থক্য হয়ে থাকে, ততটুকুই ছিল। শুটিং হয়েছিল দেশের বাইরে। এটা টিমের অন্য সদস্যদের জন্যও ব্যতিক্রম অভিজ্ঞতা। বলতে গেলে, ওটাই নতুন ছিল।’

‘আরও এক পৃথিবী’তে অতনু ঘোষের মতো নির্মাতা, কৌশিক গাঙ্গুলির মতো অভিনেতাকে পেয়ে উচ্ছ্বসিত, আপ্লুত তাসনিয়া ফারিণ। তাদের সম্পর্কে এ অভিনেত্রীর ভাষ্য, ‘তারা সবাই খুবই বিনয়ী। এত কিছু জানেন তারা। আমি অনেক কিছু শিখতে পেরেছি। আসলে আমি যে এত তাড়াতাড়ি ওনাদের মতো মানুষের সঙ্গে কাজ করতে পারবো, সেটা ভাবতে পারিনি। এটা আমার জন্য অনেক বড় ভাগ্য। আমার জন্য এটা লাইফ চেঞ্জিং অভিজ্ঞতা ছিল।’

ফারিণ জানালেন, যেহেতু এটি তার প্রথম সিনেমা, অবশ্যই ছবিটি দেখতে কলকাতায় যাবেন। তবে কবে যাবেন, তা নির্দিষ্ট করলেন না। এতটুকু বললেন, ‘৩ ফেব্রুয়ারির আগেই যাবো’।

বলে রাখা প্রয়োজন, এই ছবিতে কৌশিক গাঙ্গুলি ও তাসনিয়া ফারিণ ছাড়াও অভিনয় করেছেন সাহেব ভট্টাচার্য, অনিন্দিতা বসু প্রমুখ। এটি প্রযোজনা করেছে এসকে মুভিজ।

এদিকে সম্প্রতি তাসনিয়া ফারিণের অভিজ্ঞতার ঝুলিতে যুক্ত হয়েছে নতুন অধ্যায়। প্রথমবার তিনি ভয়েস আর্টিস্ট হিসেবে কাজ করেছেন। ‘লেজেন্ড অব দ্য ব্লু সি’ নামের একটি কোরিয়ান সিরিজের বাংলা ডাবিং ভার্সনে কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। এটি দেখা যাবে বায়স্কোপে।

কাজটি নিয়ে ফারিণের মন্তব্য, ‘ভয়েস অ্যাক্টর হিসেবে প্রথমবার কাজ করলাম। প্রস্তাবটা আমার কাছে হঠাৎ করেই আসে। মনে হয়, এতদিন তো অনেক কিছুই করেছি। কিন্তু ভয়েস অ্যাক্টিংটা করা হয়নি। সে কারণে এটাকে নতুন চ্যালেঞ্জ হিসেবেই করা। আমার কাছে বেশ ভালো লেগেছে।’

তাসনিয়া ফারিণ সর্বশেষ প্রশংসিত হয়েছেন ওয়েব সিরিজ ‘কারাগার’-এ অভিনয় করে।

কালের আলো/এমএইচ/এসবি

Print Friendly, PDF & Email