‘বিনিময়’ প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে প্রায় ৯৭ লাখ টাকা প্রতারণা

প্রকাশিতঃ 6:40 pm | November 24, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘বিনিময়’ প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে প্রায় ৯৭ লাখ টাকা প্রতারণা করেছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র। গত ১০ নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত ডিজিটাল প্রতারণার মাধ্যমে এই অর্থ আত্মসাৎ করা চক্রের মূল হোতাসহ তিন সদস্যকে গ্রেফতারের পর এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে।

সিআইডির ফাইন্যান্সিয়াল ক্রাইমের একটি দল বুধবার (২৩ নভেম্বর) বগুড়া শহরে অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতাররা হলেন- মো. গোলাম রব্বানী, . মো. শামীম আহমেদ, রুহুল আমিন। এছাড়া চক্রের আরও তিন সদস্য সিআইডির নজরদারিতে রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) সকাল ১১টায় রাজধানীর মালিবাগে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) সদর দফতরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত আইজিপি সিআইডি প্রধান মোহাম্মদ আলী মিয়া।

গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে কম্পিউটারের সিপিইউ, বিপুল পরিমাণ মোবাইলসিম, ব্যাংকের চেক বই, ডেবিট-ক্রেডিট কার্ড, ১৪টি মোবাইল ফোন ও মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের বিভিন্ন ধরনের রেজিস্টারসহ গুরুত্বপূর্ণ নথি উদ্ধার করা হয়।

মোহাম্মদ আলী মিয়া বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে উদ্বোধন করা বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠিত ‘বিনিময়’ প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র গত ১০ নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ৯৬ লাখ ৭৪ হাজার ২৫৭ টাকা ডিজিটাল প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ করে। এই প্রতারক চক্র মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের সেলফিন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে ‘বিনিময়’ প্ল্যাটফর্মে প্রবেশ করে তাদের নিজেদের বিকাশের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে অবৈধভাবে টাকা ট্রান্সফার করার অনুরোধ পাঠায়। অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে বিকাশ থেকে প্রতারকদের বিকাশের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হয়।’

তিনি বলেন, ‘এ সময় প্রতারক চক্রের সদস্যদের সেনফিন অ্যাকাউন্টে কোনও টাকা না থাকা স্বত্বেও বিনিময় প্লাটফর্ম থেকে ডিজিটাল প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ করে।’

কালের আলো/ডিএস/এমএম

Print Friendly, PDF & Email