শ্রমিকদের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করছে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ 11:19 pm | November 10, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, শুধু কারখানা মালিক নয়, শ্রমিকদের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করছে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১০ নভেম্বর) সকালে রাজারবাগে বাংলাদেশ পুলিশ অডিটরিয়ামে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের এক যুগ পূর্তি অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, মালিক-শ্রমিকদের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরিতে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ নিয়োজিত রয়েছে। তারা মালিক-শ্রমিক সবার সমস্যা শুনে অগ্রিম গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে শিল্প এলাকায় অপরাধ নিয়ন্ত্রণে দায়িত্ব পালন করছে।

অনুষ্ঠানে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ আমিনুল ইসলাম খান।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিজিএমই’র সভাপতি ফারুক হাসান, বিকেএমইএ’র নির্বাহী সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি নুর কুতুব আলম মান্নান প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান বলেন, বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাব বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পড়ছে। এটাকে পুঁজি করে কেউ যেন সুযোগ নিতে না পারে সে বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান জানান তিনি।

তিনি বলেন, অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি গার্মেন্টস খাত। এজন্য অনুকূল পরিবেশ তৈরিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাগ্রচিত্তে কাজ করে যাচ্ছেন। তারই ধারাবাহিকতায় শিল্পাঞ্চল পুলিশ গঠন হয়। শিল্পাঞ্চল পুলিশ শ্রমিকদের জন্য কাজ করছে, সে সাথে মালিকদের জন্যও নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

সিনিয়র সচিব মোঃ আমিনুল ইসলাম খান বলেন, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের স্থিতিশীল পরিবেশ নিশ্চিত করতে অনবদ্য ভূমিকা রাখছে।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, অতীতের সাফল্য অব্যাহত রেখে ভবিষ্যতেও ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির লক্ষ্যে কাজ করে যাবে।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানকে ‘অ্যাপ্রিসিয়েশন অব অ্যাক্সিলেন্স-২০২২’ অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের কার্যক্রমের ওপর একটি ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়। এছাড়া, যুগ পূর্তির আয়োজনকে স্মরণীয় করে রাখতে একটি কেক কাটা হয়।

কালের আলো/এসবি/এমএম

Print Friendly, PDF & Email