প্রধানমন্ত্রীর মানবিক নেতৃত্বের বিভা; দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রীর উচ্চারণে মুগ্ধ পিজিএ আব্দুল্লাহ শাহিদ (ভিডিও)

প্রকাশিতঃ 10:07 pm | May 25, 2022

বিশেষ সংবাদদাতা, কালের আলো:

সুপার সাইক্লোন আম্পানের তান্ডব চলছে তখন। প্রায় দু’ বছর পর ২০২০ সালের মে’র ভয়ানক মুহুর্তটি নিজের স্মৃতিপ্রকোষ্ঠ থেকে তুলে আনলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা: এনামুর রহমান এমপি। সেই সাইক্লোনে ক্ষয়ক্ষতি রোধ ও সবচেয়ে বেশি মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসার সফলতায় কৃতিত্ব দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেই।

আরও পড়ুন: দুর্যোগ ঝুঁকি মোকাবেলায় টেকসই স্থিতিস্থাপকতার থিওরি ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট’র (ভিডিও)

বলতে থাকলেন, ‘সরকারপ্রধান হয়েও নির্ঘুম থেকে ঘন্টায় ঘন্টায় প্রতিমন্ত্রীকে ফোন করে সার্বিক প্রস্তুতি সম্পর্কে জানা, মাঠ পর্যায়ের অগ্রগতির খবর বার্তা, কখন কী করতে হবে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা প্রদান করার মতো একমাত্র উদাহরণ বঙ্গবন্ধুকন্যাই। যতক্ষণ সাধারণ মানুষ নিরাপদ আশ্রয়ে না এসেছে ততক্ষণ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী নিজেও ঘুমাতে পারেননি, ঘুমোতে যাননি। এমন মানবিক নেতা বিশ্ব ইতিহাসে বিরল।’

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনকালীন গত তিন বছরে একইভাবে প্রতিটি প্রাকৃতিক দুর্যোগেই গুণে, মেধায় ও যোগ্যতায় অনন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মানবিক নেতৃত্বের বিভা অবলোকন করেছেন ডা: এনামুর রহমান। বলেছেন, ‘প্রতিটি ঘূর্ণিঝড়ের সময় সার্বক্ষণিক যোগাযোগ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা আমাদের সবাইকে দারুণভাবে উৎসাহিত করে।’

ইন্দোনেশিয়ার বালির নুসা দুয়াতে বুধবার (২৫ মে) জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি (পিজিএ) আব্দুল্লাহ শাহিদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় দুর্যোগের নতুন ঝুঁকি প্রতিরোধ ও বিদ্যমান ঝুঁকি হ্রাস করে টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে অক্লান্তকর্মা, বহুদর্শী মানবিক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিখাঁদ দেশপ্রেম, ধৈর্য্যশীলতা, দুর্যোগ কবলিত মানুষের জন্য ঐকান্তিক ভাবনা, সহানুভূতি-সহমর্মিতার গল্প এভাবেই বলে গেলেন প্রতিমন্ত্রী ডা: এনামুর রহমান।

মুগ্ধতার আবির ছড়ানো এই গল্পে বিমুগ্ধ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি (পিজিএ) আব্দুল্লাহ শাহিদ উচ্চারণ করলেন ‘শেখ হাসিনা একজন কাইন্ড হার্টেট প্রধানমন্ত্রী’। দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাসে অর্জনের সোপানে সতত অগ্রসরমান বাংলাদেশের জাতিসংঘের বিভিন্ন ফোরামে উল্লেখযোগ্য অংশগ্রহণ, তাৎপর্যপূর্ণ অবদান ও ফলপ্রসু নেতৃত্বেরও ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতির সঙ্গে প্রতিমন্ত্রী ডা: এনামুর রহমানের আলোচনার সময়টিতে সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী কন্যা, প্রখ্যাত অটিজম বিশেষজ্ঞ সায়মা ওয়াজেদ পুতুল। ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুল হাসানও।

‘দুর্যোগে বাংলাদেশের মানুষের মৃত্যুর হার শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে’
দ্বিপাক্ষিক এই আলোচনায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা: এনামুর রহমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের অভূতপূর্ব সাফল্যের নানাদিক উপস্থাপন করেন। এই সাফল্যের ধারাবাহিকতায় দুর্যোগে বাংলাদেশের মানুষের মৃত্যুর হার শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এ সময় জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতিও দুর্যোগ মোকাবেলায় বাংলাদেশের সক্ষতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন।

বৈঠকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস এবং সাড়াদানে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এর ফলে মানুষের মৃত্যুহার শুন্যের কোটায় নামিয়ে আনার পাশাপাশি সম্পদের ক্ষতিও অনেক কমিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে।

এর আগে বালির নুসা দুয়াতে দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাসে সপ্তম আন্তর্জাতিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো। পরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বালিতে জিপিডিআরআর ২০২২-এ ‘কার্যকর দুর্যোগ ঝুঁকি কমানোর জন্য অন্তর্ভুক্তিমূলক স্থানীয় পদক্ষেপ এবং কাউকে পিছিয়ে না রাখা : ঢাকা ঘোষণা এবং অন্যান্য অনুপ্রেরণামূলক উদ্যোগ’ এ প্রধান আলোচক হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুলও মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন।

কালের আলো/এমএএএমকে

Print Friendly, PDF & Email