স্বস্তির হাসি কর্মহীনদের, মানবিক হৃদয় নিয়েই পাশে বিসিএস নবম ব্যাচ ফোরাম

প্রকাশিতঃ 3:57 pm | April 24, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো :

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের তান্ডবে ৮ দিনের দ্বিতীয় দফার লকডাউনে বন্ধ হয়ে গেছে অনেকের আয়ের উৎস। বাড়ছে কর্মহীন মানুষের সংখ্যাও। ফলশ্রুতিতে তাঁরা শিকার হচ্ছেন দরিদ্রতার। বেঁচে থাকার তাগিদে কেউ কেউ হচ্ছেন ঋণগ্রস্ত। আর এমন দুর্দিনে হাত গুটিয়ে বসে না থেকে নিম্ন আয়ের এসব মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন বিসিএস নবম ব্যাচ ফোরাম।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে সাড়া দিয়ে তাঁরা নিজেদের ফোরামের কল্যাণ ফান্ডের টাকায় কর্মহীন ও নিম্ন আয়ের মানুষের হাতে তুলে দিচ্ছেন চাল, ডাল, তেল, চিনি, আলু, লবণ ও সেমাইসহ বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য।

শনিবার (২৪ এপ্রিল) রাজধানীর ধোলাইপাড় এলাকায় প্রায় চার শতাধিক পরিবারের মাঝে মানবিক সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে। এসব পণ্যের মাধ্যমে চার সদস্যের একটি পরিবারের প্রায় এক সপ্তাহের আহারের ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।

চলতি করোনাযুদ্ধে কবি শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের সেই অমর কবিতাখানি ‘তুমি মানুষ হয়ে পাশে দাঁড়াও/মানুষ বড় একলা, তুমি তাহার পাশে এসে দাঁড়াও’ হৃদয়তন্ত্রিতে গেঁথে করোনার বিষাক্ত ছোবলে ক্ষতবিক্ষত খেটে খাওয়া মানুষের হৃদয়ের রক্তক্ষরণ থামাতে গত বছরের মতো এবারও উদ্যোগী হয়েই যেন নেমে পড়েছেন বিসিএস নবম ব্যাচ ফোরাম।

পুরো বিষয়টি তত্ত্বাবধান করছেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মো: তোফাজ্জল হোসেন মিয়া। ফ্রন্টলাইনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন, মাইক্রো ক্রেডিট রেগুলেটরী অথরিটির এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ ফসিউল্লাহ, স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কে এম তারিকুল ইসলাম, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্রসহ ফোরামের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

সংক্রমণ মুক্ত থাকার আশায় ঘরে থাকার সময়টাতে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের সামাজিক দূরত্বের শর্ত মেনেই হাতের নাগালেই বিসিএস নবম ব্যাচ ফোরামের নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য পেয়ে আনন্দিত হয়েছে নিম্নআয়ের মানুষজন।

লকডাউনে নিম্ন আয়ের মানুষের দুর্দশা লাঘবে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তি উদ্যোগে কর্মহীন মানুষের মানবিক সহায়তায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন।

তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, মনুষ্যত্ববোধের পরিচয় বিপদেই দিতে হয়। আমরাও মনে করি সবাই যদি নিজ নিজ অবস্থান থেকে বিপন্ন ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ায় তাহলে তাদের কঠিন মুহুর্ত জয় করা সম্ভব। আর এর মাধ্যমে করোনাও জয় করা সম্ভব হবে।

আর এজন্যই কোভিড-১৯ মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মানবিক এবং সামাজিক কার্যক্রমে অংশগ্রহণ অব্যাহত রাখার দৃঢ় প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন বিসিএস নবম ব্যাচ ফোরামের নেতৃবৃন্দ।’

কালের আলো/এসএকে/এমকে

Print Friendly, PDF & Email