মেয়র আতিক বললেন, ‘নো সরি, থানায় যাবে গাড়ি’! (ভিডিও)

প্রকাশিতঃ 8:58 pm | November 18, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো :

সড়কে গাড়ি পার্কিং নিয়ে নৈরাজ্য নতুন নয় মোটেও। সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে সিটিতে রাস্তায় কার পার্কিং আনতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো.আতিকুল ইসলাম। অবৈধভাবে দখল করা পার্কিংয়ের স্থানগুলো উদ্ধারে তিনি ইতোমধ্যেই জোর তৎপরতাও শুরু করেছেন।

কিন্তু চালকরা সচেতন হচ্ছে না। আর তাদের দায়িত্বহীনতার গ্যাঁড়াকলে মূল্যবান সময় ঘন্টা নষ্টের খেসারত গুণতে হচ্ছে নগরবাসীকে। তবে কথার সঙ্গে সঙ্গে অ্যাকশনের মাধ্যমে চালকদের হুঁশ ফেরাতে এবার নিজেই উদ্যোগী হয়েছেন ডিএনসিসির মেয়র।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) সন্ধ্যার একটি ঘটনা। রাজধানীর বনানীর নিজের কার্যালয় থেকে বের হয়ে উত্তরায় ৪ নম্বর সেক্টরের বাসায় ফিরছিলেন মেয়র আতিকুল ইসলাম।

সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে তাঁর গাড়ি যখন উত্তরার ৪ নম্বর সেক্টরের ২ নম্বর রোডে। ঠিক তখনই তিনি লক্ষ্য করলেন সেই সড়কে একটি প্রাইভেটকার চালক অবৈধভাবে সড়ক দখল করে গাড়ি পার্কিং করেছেন।

ওই চালকের দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণে পেছনে ব্যাপক যানজট সৃষ্টি হয়েছে। আশেপাশের অন্যরা ওই চালককে বারবার অনুরোধ জানালেও কোন ভ্রুক্ষেপ নেই। এমন পরিস্থিতিতে মেয়র আতিকুল ইসলাম নিজেই গাড়ি থেকে নেমে এলেন।

চালকের উদ্দেশ্যে কড়া ভাষায় বললেন, ‘রাস্তা দখল করে গাড়ি পার্কিং করবেন আর জনগণ কষ্ট করবে, এটা হতে পারে না। এ গাড়ি থানায় যাবে।’ মুহুর্তেই ছুটে এলো পুলিশ, সঙ্গে র‌্যাকারও।

বেগতিক পরিস্থিতিতে চালক ক্ষমা চাইলেন। কিন্তু জনগণের দুর্ভোগ নিজের চোখে প্রত্যক্ষ করে কিছুটা ক্ষুব্ধ নগর পিতা বললেন, ‘নো সরি, থানায় যাবে গাড়ি।’ পরে চালক অনুতপ্ত হয়ে ক্ষমা চেয়ে পড়িমড়ি করে দে ছুট!

এ ঘটনায় উপস্থিত লোকজন মেয়র আতিকুল ইসলামের দায়িত্বশীল ও তাৎক্ষণিক অ্যাকশনের প্রশংসা করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তাকে নিয়ে ইতিবাচক আলোচনা চলছে। কেউ কেউ বলছেন, ‘জনবান্ধব এক নগর পিতার প্রতিচ্ছবি আতিকুল ইসলাম।’

কালের আলো/এসকে/এমএএস

Print Friendly, PDF & Email