খালেদার মুক্তির দাবিতে লিফলেট বিলাচ্ছেন বিএনপি নেতারা

প্রকাশিতঃ 7:22 pm | April 01, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে লিফলেট বিতরণ করছে বিএনপি। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর রোববার ঢাকার নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে এ কর্মসূচির সূচনা করেন।

মির্জা ফখরুল দুপুরে নয়া পল্টনের বিএনপি কার্যালয় থেকে পায়ে হেঁটে ফুটপাতের দোকানদার, রিকশা চালক, পথচারীসহ সাধারণ মানুষের হাতে ‘গণতন্ত্রের মা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি চাই’ শীর্ষক লিফলেট বিতরণ করেন।

দলের কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, ফরহাদ হোসেন আজাদ, শ্রমিক দলের আনোয়ার হোসেইন এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন।

রাজধানীর সবগুলো থানা এলাকাতেই বিএনপি নেতাদের নেতৃত্বে লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে বলে দলের দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, “বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে তার দলসহ ২০ দলীয় জোট এবং ‘সকল গণতান্ত্রিক মানুষ’ শান্তিপূর্ণ ও নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনে রয়েছে।”

তিনি বলেন, “আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের মাধ্যমে দেশনেত্রীকে মুক্ত করে নিয়ে আসতে সক্ষম হবো ইনশাল্লাহ এবং এই অবৈধ সরকারের হীন যে প্রচেষ্টা, তা পরাস্ত করতেও সক্ষম হবো।”

সারাদেশে লিফলেট বিতরণ হবে জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, “এটি কয়েকদিন চলবে। দেশনেত্রীকে বেআইনিভাবে ও প্রতিহিংসামূলকভাবে আটক রাখা এবং বিরোধী দলকে নির্মূল করে সরকারের একদলীয় শাসনব্যবস্থা প্রবর্তন করবার যে নীল নকশা, তাকে রুখে দেবার জন্য আমরা জনগণের প্রতি আহবান জানিয়েছি।”

ঢাকার মহানগর বিশেষ জজ আদালত গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ে খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠায়। এর প্রতিবাদে এবং খালেদার মুক্তির দাবিতে বিএনপি বিক্ষোভ, মানববন্ধন, অবস্থান, গণঅনশন, জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি পেশের মত কর্মসূচি পালন করে আসছে।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আগামী মঙ্গলবার সারাদেশে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি। এছাড়া ১৫ এপ্রিল রাজশাহীতে, ৭ এপ্রিল বরিশালে এবং ১০ এপ্রিল সিলেটে জনসভার কর্মসূচি রয়েছে তাদের।

মহাখালীতে পুলিশের বাধা

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন মহাখালীর ওয়্যারলেস গেইট সড়কের ফুটপাতে লিফলেট বিতরণের সময় পুলিশের বাধা মুখে পড়েছেন। সেখান থেকে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক ফরহাদ হালিম ডোনারসহ কয়েকজনকে পুলিশ আটক করে বনানী থানায় নিয়ে গেছে বলেও অভিযোগ করেছে দলটি।

এ বিষয়ে খন্দকার মোশাররফ বলেন, “ওই এলাকার ফুটপাতে পথচারী ও দোকানদারদের মধ্যে লিফলেট বিতরণ করছিলেন তারা। এক পর্যায়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বাধায় কর্মসূচি পণ্ড হয়ে যায়। এখানে পুলিশ যেভাবে আমাদের এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বাধা দিল, এটা দুঃখজনক ও অনভিপ্রেত।”

কালের আলো/আরএস/এএ

Print Friendly, PDF & Email