আমাদের ত্রাণের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে : দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ 2:51 pm | July 07, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক, কালের আলো:

দেশের অনেক অঞ্চলে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ পর্যাপ্ত ত্রাণ পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ রয়েছে, এমন প্রশ্নের উত্তরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মো. মুহিববুর রহমান বলেছেন, যেসব এলাকায় বন্যা হয়েছে সেসব জেলার ডিসিরা নিশ্চিত করেছেন তাদের পর্যাপ্ত ত্রাণ মজুত আছে। যাকে যেখানে সহযোগিতা করা দরকার সেটা করা হচ্ছে। এই অভিযোগের সত্যতা আমরা পাইনি। আমি পরিষ্কার বলতে চাই আমাদের ত্রাণের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে।

রোববার (৭ জুলাই) সচিবালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে দেশের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে এ কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, কেউ ত্রাণ না পাওয়ার কোনো কারণ নেই। তারপরেও যদি এমন তথ্য আমাদের কাছে আসে, আমরা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেব। এছাড়া ৯৯৯ এ কল করলেও খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হবে। বাংলাদেশের এমন কোনো গ্রাম-ইউনিয়ন নেই যেখানে আমাদের সেচ্ছাসেবী নেই। এখনো পর্যন্ত আমাদের কোথাও কোনো ঘাটতি নেই।

তিনি বলেন, দেশের প্রতিটি জেলায় বন্যাকালীন ত্রাণ সরবরাহ নিরবচ্ছিন্ন রাখতে অতিরিক্ত বরাদ্দ দিয়ে রাখা হয়েছে। এ সম্পর্কে প্রয়োজনীয় নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে। ভবিষ্যতেও দুর্যোগ মোকাবিলায় আমরা প্রস্তুত রয়েছি। সমগ্র পৃথিবীতে দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ একটা মডেল। বন্যা পরবর্তী ক্ষতি যাতে মানুষ কাটিয়ে উঠতে পারে সেসব বিষয়েও আমরা কাজ করছি। বন্যায় ত্রাণ সরবরাহে যাতে কোন সমন্বয়হীনতা না থাকে সেদিকে খেয়াল রেখে সব জেলার ডিসিদের সঙ্গে জুম মিটিং করেছি। তাদের প্রয়োজনীয় সব নির্দেশনা দেওয়া হয়েছ।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ মাথাপিছু কেমন বরাদ্দ পাচ্ছে এমন প্রশ্নের উত্তরে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান বন্যটা অনেক লম্বা সময়ের জন্য হয়। এখনকার বন্যার মাথাপিছু বরাদ্দ করা হয়নি। তবে যখন যার যেটা দরকার সেটা দেওয়া হচ্ছে। এখানে গ্যাপ থাকার সুযোগ নেই।

কালের আলো/ডিএইচ/কেএ 

Print Friendly, PDF & Email